রাজ্য

ফুলশয্যার পরের দিন বাড়ি থেকে পালিয়ে গেল যুবক! নববধূকে বাড়ির অর্ধেক অংশ দান করতে বাধ্য হল পরিবার

বিয়ের মন্ডপ থেকে বর পালিয়েছে অথবা বিয়ে করার ভয়ে পাত্র বা পাত্রী পালিয়ে গেছে একথা আমাদের কাছে জানা। কিন্তু ফুলশয্যার পরের দিন পালিয়ে গেছেন স্বামী, এ ঘটনা মোটেই স্বাভাবিক নয়। এখনও বরের কোনও খোঁজ মেলেনি।

ঘটনাটি ঘটেছে ডোমকল পৌরসভার লক্ষ্মীনারায়ণপুর ক্যাপ্টেন পাড়ায়। গত ৩ আগস্ট ডোমকল বাবুপাড়ার দিশা পালের সঙ্গে আনুষ্ঠানিক বিয়ে হয় ক্যাপ্টেন পাড়ার বাসিন্দা প্রসেনজিৎ পালের। বিয়ের পরের দিন ছিল বৌভাতের অনুষ্ঠান। নববধূকে টাকা তুলতে যাওয়ার নাম করে আর বাড়ি ফেরেননি প্রসেনজিৎ পাল।

ঘটনা দুদিন পর নববধূর দিশা পালের পরিবারের লোকজন এসে শ্বশুরবাড়িতে তালা ঝুলিয়ে দেন। শেষমেশ মধ্যস্থতা করে নববধূকে বাড়ির অর্ধেক অংশ লিখে দেন প্রসেনজিতের পরিবার। দিশার পরিবারের লোকজন দাবি করেন যুবকের সঙ্গে অন্য মেয়ের সম্পর্ক আছে সেই সব জেনেও এই বিয়ে দেওয়া হয়েছে।

নববধূ দিশা পাল জানিয়েছেন, ‘ একটি মেসেজ আসে আমি নাকি তাঁর স্বামীকে কেড়ে নিয়েছি। পরে ফোন করে একই কথা বললে আমি বলি তোমার বর তার কী প্রমাণ আছে? ফোনের অপর প্রান্ত থেকে রেজেস্ট্রি ম্যারেজ সার্টিফিকেট রয়েছে বলে জানানো হয়। আমাকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়। রাতেও আমি আমিল দিইনি।’ এরপরের দিনই এটিএমে টাকা তুলতে যাওয়ার নাম করে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান প্রসেনজিৎ।

Related Articles

Back to top button