সব খবর সবার আগে।

খাবার পৌঁছতে দেরি হওয়ায় জোম্যাটোর ডেলিভারি বয়কে চড় মহিলার, ভেঙে ফেলা হল মোবাইলও

ফের এক ডেলিভারি বয়কে হেনস্থার অভিযোগ উঠল এক মহিলার বিরুদ্ধে। খাবার পৌঁছতে সামান্য দেরি হওয়ায় ওই ডেলিভারি বয়কে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকেন তিনি। তাঁর ফোন ছুঁড়ে ফেলে দেওয়া হয়। তাঁকে ওই মহিলা চড় মারেন বলেও অভিযোগ। জোম্যাটো ডেলিভারি বয়ের উপর এমন আক্রমণের ঘটনায় নিন্দার ঝড় উঠেছে।

ঠিক কী ঘটেছিল?‌

জানা গিয়েছে, গতকাল, মঙ্গলবার সোদপুরের পানশিলা আনন্দপল্লি এলাকায় রোজকার মতোই খাবারের অর্ডার নিয়ে বেরিয়েছিলেন উজ্জ্বল দাস নামে ডেলিভারি বয়। নিয়মমতোই অর্ডার পৌঁছে দিচ্ছিলেন তিনি। সেই সময় সোদপুর কালীতলা মাঠ এলাকা থেকে একটি খাবারের অর্ডার আসে। নির্দিষ্ট জায়গাতেই খাবার নিয়ে পৌঁছন তিনি।

তবে সাইকেলে যেতে একটু দেরি হয়ে গিয়েছিল তাঁর। এটাই তাঁর অপরাধ। তখন ফোনেই এক মহিলা গ্রাহক তাঁকে গালিগালাজ করতে শুরু করেন। আর নির্দিষ্ট লোকেশনে পৌঁছানোর পর তাঁকে আরও ৫০০ মিটার দূরে অন্য একটি জায়গায় পানশিলা আনন্দপল্লীতে যেতে বলা হয়।

উজ্জ্বলের অভিযোগ, তিনি সেই লোকেশনে যেতে রাজি হন নি। তবে পরে তিনি যেতে বাধ্য হনব। সেখানে খাবার নেওয়ার পর ওই মহিলা তাঁকে ফের গালিগালাজ করতে থাকেন। কেন খাবার পৌঁছতে দেরি হয়েছে, এই প্রশ্ন তুলে ডেলিভারি বয়ের গালে সপাটে চড় কষান তিনি। তাঁর মোবাইল ছুঁড়ে ফেলে ভেঙে দেওয়া হয়। এমনকি, তাঁর সাইকেলের উপর চড়াও হ্যেও ক্ষতি করা হয়েছে বলে অভিযোগ।

এমন পরিস্থিতিতে উজ্জ্বল নিজের সহকর্মীদের এই বিষয়ে জানান। এদিন রাতেই ঘোলা থানায় এই ঘটনার অভিযোগ জানানো হয়। অভিযোগ, ওই মহিলা মদ্যপ ছিলেন। আর সেই অবস্থাতেই তিনি চড়াও হন উজ্জ্বলের উপর। পুলিশ এই ঘটনার তদন্ত করছে। জানা গিয়েছে, যে অ্যাকাউন্ট থেকে খাবার অর্ডার করা হয়েছিল, সেটি ভুয়ো ছিল।

You might also like
Comments
Loading...