রাজ্য

মমতার ধাঁচেই গড়া! কাঁথিতে সভার আগেই গ্রামের বাড়ি বাড়ি ঘুরে সকলের অভিযোগ শুনলেন অভিষেক, দিলেন সমস্যা সমাধানের আশ্বাসও

মাঝরাস্তায় গাড়ি থেকে নেমে আমজনতার সঙ্গে মিশে যাওয়া, এমনকি বাড়ি বাড়ি গিয়ে সকলের অভাব-অভিযোগের কথা শোনা, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এমন ঘটনার সাক্ষী থেকেছে বাংলা। এবার তেমনই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটল বটে তবে বদলে গেল ব্যক্তিটি। এবার আর মমতা নন, গ্রামবাসীদের বাড়ি বাড়ি ঘুরে জনসংযোগ করতে দেখা গেল তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে। কাঁথিতে সভা করতে যাওয়ার আগে গাড়ি থেকে নেমে গ্রামের বাড়ি বাড়ি যান তিনি।

এদিন নীল শার্ট, কালো ট্রাউজারে নেতাকে দেখে প্রথমে চমকে যান গ্রামবাসীরা। তবে অভিষেক অনায়াসে মেঠো পথ ধরে গ্রামের ভিতরে ঢুকে যান। ভাঙাচোরা ঘরদোরে যান। মাটির দাওয়ায় উঠে বাসিন্দাদের সঙ্গে কথা বলেন। তাঁরাও নিজেদের সমস্য়ার কথা জানান। কাগজপত্র পরীক্ষা করেন অভিষেক। তারপর বলেন, “আমাকে এসব পাঠান, আমি দেখছি কী করা যায়”।

বেশ অনেকগুলি বাড়িতেই এদিন যান অভিষেক। সব বাড়িতেই নির্দিষ্ট সময় দেন তিনি। সকলের কথা-অভিযোগ শোনেন মন দিয়ে। বাড়ির মেয়ে-বউরা তাদের অভিযোগের কথা জানান তাঁকে। এরপর ফের গাড়িতে উঠে চলে যান প্রভাত কলেজের মাঠে অর্থাৎ যেখানে আজ তাঁর সভা রয়েছে সেখানে।

সাধারণত, এমন জনসংযোগ করতে দেখা যায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। চলতি সপ্তাহেই টাকি গিয়ে এক গ্রামবাসীর মাটির ঘরের উঠোনে বসে রেশনের চালের ভাত ও ওল-ট্যাংরার ঝোল খেয়েছেন তিনি। মানুষের মধ্যে মিশে একেবারে ‘ঘরের মেয়ে’ হয়ে ওঠেন তিনি। এবার সেই একই পথে চলতে দেখা গেল অভিষেককেও।

Related Articles

Back to top button