সব খবর সবার আগে।

শুভেন্দুর পদত্যাগে শাসকের অস্তিত্ব লোপ পাওয়ার শুরু! ভবিষ্যতে ভেঙে টুকরো-টুকরো হয়ে যাবে তৃণমূল: অধীর উবাচ

জল্পনার অবসান শেষে মন্ত্রিত্ব ছাড়লেন শুভেন্দু অধিকারী। মুখ্যমন্ত্রী ও রাজ্যপালকে চিঠি দিয়ে মন্ত্রিত্ব ছাড়লেন তিনি। তার পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেছেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সূত্রের খবর, ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহেই পদ্ম শিবিরে নাম লেখাতে পারেন রাজ্যের সদ্য প্রাক্তন পরিবহণমন্ত্রী। বেশ কয়েক মাসের টালবাহানার পর অবশেষে বড় পদক্ষেপ নিলেন শুভেন্দু। শুক্রবার পশ্চিমবঙ্গের পরিবহণ ও সেচ দফতরের মন্ত্রিত্ব থেকে ইস্তফা দিলেন তিনি।
শুভেন্দু অধিকারী সঙ্গে তৃণমূল নেতৃত্বের সম্পর্ক যে জটিল থেকে জটিলতর হয়ে উঠেছে তা বুঝতে বাকি ছিল না বঙ্গ রাজনীতিতে শাসক থেকে বিরোধীদের।

আর শুভেন্দু অধিকারীর এই পদক্ষেপ যে তৃণমূল নেতৃত্বের ভিত বেশ নড়বড়ে করে দিয়ে গেল তা বলার অপেক্ষা রাখেনা। এই ঘটনা তৃণমূলের জন্য অশনি সংকেত বলে দাবি করলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর রঞ্জন চৌধুরী। শুভেন্দুর মন্ত্রিত্ব থেকে ইস্তফার খবরে অধীর নিজের প্রতিক্রিয়ায় জানান, ‘‌তৃণমূল দলের জন্য এই ঘটনা আসলেই একটা অশনি সংকেত। তৃণমূল আগামী দিনে ভেঙে টুকরো–টুকরো হয়ে যাবে। এগুলো তার শুরু। অতএব এখনও যাঁরা তৃণমূল করছেন, তাঁরা ভেবে দেখবেন। কারণ, তৃণমূলের অস্তিত্ব লোপ পাওয়ার প্রক্রিয়া এই মুহূর্ত থেকে শুরু হয়ে গেল।’‌

অধীর আর‌ও বলেন , শুভেন্দু অধিকারী ও তাঁর পরিবারের সঙ্গে তাঁর রাজনৈতিক প্রতিপক্ষতা বরাবরই ছিল। তাঁর কথায় ‘‌তৃণমূলের যে কটা বড় বড় মাথা তাঁদের মধ্যে অন্যতম শুভেন্দু অধিকারী ও তাঁর পরিবার। তৃণমূলের সব বড় বড় স্তম্ভ এরা। স্তম্ভ যখন ভাঙা শুরু করেছে তখন অট্টালিকা বেশিদিন থাকতে পারবে না। তৃণমূল নামক মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অট্টালিকা ধীরে ধীরে ভাঙনের পথে এগিয়ে চলেছে। আগামীদিনে তা ভস্মীভূত হবে।’‌

_taboola.push({mode:'thumbnails-a', container:'taboola-below-article', placement:'below-article', target_type: 'mix'}); window._taboola = window._taboola || []; _taboola.push({mode:'thumbnails-rr', container:'taboola-below-article-second', placement:'below-article-2nd', target_type: 'mix'});
You might also like
Comments
Loading...