সব খবর সবার আগে।

মুকুলকে গরুই বলে বসলেন অনুব্রত, চাণক্যকে ঠোকা মারলেন জোরদার!

সব জল্পনার শেষ। প্রায় ৪ বছর পর ফের তৃণমূল কংগ্রেসে ফিরলেন মুকুল রায়। শুক্রবার তৃণমূল ভবনে বিজেপির সঙ্গ ত্যাগ করে মুকুল রায় পুত্র শুভ্রাংশুকে নিয়ে যোগদান করলেন। এর মধ্যেই প্রতিক্রিয়া জানিয়ে তৃণমূল সাংসদ অনুব্রত মণ্ডল মন্তব্য করেন, ‘দড়ি ছিঁড়ে বেরিয়ে গেছিল গরু, আবার খুঁটিতে এনে বাঁধা হল’। মানে কেষ্ট আছেন কেষ্টতেই।

একুশের বিধানসভার ভোটের ফলাফল বের হওয়ার পর থেকেই বিজেপির সঙ্গে তার দূরত্ব যে ক্রমশ বাড়ছিল, তা ফুটে উঠছিল প্রতি পদক্ষেপে।

মুকুল পত্নী অসুস্থ হওয়ার পর বর্তমানে তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দোপাধ্যায় তার সাথে হাসপাতালে দেখা করতে আসেন। তখন থেকেই তৃণমূলে যোগদানের জল্পনা আরও গভীর হতে থাকে। যা শুক্রবার শেষ পরিণতি পেল। দলের পুরনো কর্মীর পুনরায় দলে যোগ দেওয়াকে কেন্দ্র করে খুশি তৃণমূল সুপ্রিমো।

শুক্রবার তিনি বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি মুকুল রায়কে দলে যোগদানের অনুষ্ঠানে বলেন, ‘ওল্ড ইজ গোল্ড। এতদিনে শান্তি পেল।‘ এছাড়াও এদিন সাংবাদিক বৈঠকে তিনি বলেন, ‘বিজেপিতে কেউ ভালো থাকতে পারে না। মুকুল ভালো ছিল না। অসুস্থ হয়ে পড়েছিল। বুঝতে পারছিলাম। কিন্তু মুখে কিছু বলতে পারত না। ঘরে ফিরে ও শান্তি পেল।‘

গতকাল দলে যোগদানের সময় বীরভূম জেলার দাপুটে নেতা অনুব্রত মণ্ডল মুকুল রায়কে চাণক্য বলার প্রসঙ্গে কটাক্ষের সুরে বলেন, উনি চাণক্য নন। আসল চাণক্য মমতা বন্দোপাধ্যায়। দলনেত্রী মনে করেছেন মুকুল রায়কে দলে নেবেন তাই নিয়েছেন। অন্যান্য দলত্যাগী সদস্য দলে ফিরতে চাইলে তৃণমূল সুপ্রিমোই সিদ্ধান্ত নেবেন একথাও বলেন তিনি।

_taboola.push({mode:'thumbnails-a', container:'taboola-below-article', placement:'below-article', target_type: 'mix'}); window._taboola = window._taboola || []; _taboola.push({mode:'thumbnails-rr', container:'taboola-below-article-second', placement:'below-article-2nd', target_type: 'mix'});
You might also like
Comments
Loading...