সব খবর সবার আগে।

WB Election 2021: নজরবন্দি অবস্থাতেই উধাও অনুব্রত মণ্ডল, খোঁজ চালাচ্ছে ম্যাজিস্ট্রেট ও আধাসেনা

নজরবন্দি হওয়ার পরদিনই কার্যত উধাও হয়ে গেলেন অনুব্রত মণ্ডল। গতকালই নির্দেশ জারি করা হয় যে মঙ্গলবার বিকেল ৫টা থেকে ৩০শে এপ্রিল সকাল ৭টা পর্যন্ত নজরবন্দি অবস্থায় থাকবেন বীরভূমের এই দোর্দণ্ডপ্রতাপ তৃণমূল নেতা।

জানা গিয়েছে, আজ, বুধবার, সকাল ১১টা ৪০ মিনিট নাগাদ অনুব্রত বাড়ি থেকে বেরোন। তখনও তাঁর গাড়ির সঙ্গেই ছিল ম্যাজিস্ট্রেট ও ৮ জন আধসেনা। তবে তারা অবশ্য অন্য গাড়িতে ছিলেন। দাবী, কিচ্ছুক্ষণ পরই রীতিমতো উধাও হয়ে যায় অনুব্রতর গাড়ি। এখনও পর্যন্ত তাঁর কোনও খোঁজ মেলেনি।

আরও পড়ুন- ফের বড় ধাক্কা তৃণমূলে! ভোটের আবহেই ঘাসফুল ত্যাগ করলেন প্রভাবশালী তৃণমূল নেতা

গতকাল, মঙ্গলবার নির্বাচন কমিশন তাঁকে নজরবন্দি করার পরও কোন প্রতিক্রিয়া দেননি অনুব্রত মণ্ডল। এই প্রভাবশালী তৃণমূল নেতা বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পরামর্শ মতো এদিনই তিনি আদালতের দ্বারস্থ হবেন। এও জানান যে, ‘খেলা হবে’।

এখনও পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী, লাভপুর থেকে আমোদপুরের দিকে যাচ্ছে অনুব্রত মণ্ডলের গাড়ি। সেদিকেই যাচ্ছেন কমিশনের আধিকারিকরাও। ২৯ এপ্রিল অর্থাৎ আগামীকালই বীরভূমে অষ্টম দফায় নির্বাচন। শেষ দফা নির্বাচনে স্বাভাবিকভাবেই কমিশনের পাখির চোখ বীরভূম। সবচেয়ে বেশি সংখ্যক কেন্দ্রীয় বাহিনীও মোতায়েন করা হয়েছে অনুব্রতর জেলায়। এমন অবস্থায় অন্যান্যবারের মতো এবারও অনুব্রত মণ্ডলকে ফের ‘নজরবন্দি’ করা হতে পারে, তা নিতে একপ্রকার জল্পনা ছিলই। সেই জল্পনার অবসান ঘটে মঙ্গলবার কমিশনের নির্দেশের পরেই।

আরও পড়ুন- নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন, ফিরহাদকে নোটিশ পাঠাল কমিশন

নজরবন্দি হওয়ার পরে অনুব্রত জানিয়েছিলেন, “আমাকে নজরবন্দি করা কমিশনের রুটিন ডিউটি। ১৪ সালের খাতা খুলছে, রুটিনে যা আছে তাই করতে হবে। তবে ভাল হয়েছে। লাভই হয়েছে, কোনও লোকসান নেই। আমি যেখানে যাব, ওঁরা সঙ্গে ছুটবে। ফাইন খেলা হবে, যাঁরা সঙ্গে থাকবে গোলটা পাস করে দেবে। ভয়ঙ্কর খেলা হবে”। তবে কী এবার সেই খেলাই শুরু করলেন অনুব্রত?

You might also like
Comments
Loading...