রাজ্য

অভিনেতা অভিষেক চট্টোপাধ্যায়ের মৃত্যুতে তাঁকে ‘স্বাধীনতা সংগ্রামী’ বলে শোকপ্রকাশ তৃণমূল নেতার, ‘অশিক্ষা’ বলে কটাক্ষ বিজেপি নেতা অনুপম হাজরার

গত বৃহস্পতিবার অভিনেতা অভিষেক চট্টোপাধ্যায়ের মৃত্যুর খবর মেলে। এরপরই শোকে ভেঙে পড়ে টলিপাড়া। এমন একজন অভিনেতার এভাবে অকালে চলে যাওয়াকে মেনে নিতে পারেন নি কেউই। গোটা টলিউড যেন শোকস্তব্ধ হয়ে পড়ে। অভিষেকের অকাল প্রয়াণে তাঁকে স্মরণ করে তাঁর সঙ্গে কাটানো নানান মুহূর্ত শেয়ার করেছেন নানান তারকা।

অনেকেই সংবাদমাধ্যমে অভিনেতা অভিষেক চট্টোপাধ্যায়কে নিয়ে শোকপ্রকাশ করেছেন। বাংলা ইন্ডাস্ট্রির জন্য অভিষেক চট্টোপাধ্যায়ের মৃত্যু একটা বড় ধাক্কা। তাঁকে শ্রদ্ধা জানিয়ে শোক জ্ঞাপন করেছেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। নানান রাজনৈতিক নেতারাও অভিষেকের অকাল প্রয়াণে শোক বার্তা জানিয়েছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়।

এরই মাঝে উঠে এল একটি পোস্ট। যেখানে অভিষেক চট্টোপাধ্যায়কে ‘স্বাধীনতা সংগ্রামী’ বলে উল্লেখ করে শোক বার্তা জানানো হয়েছে। এই পোস্টটি করেছেন কৃষ্ণনগর শহর তৃণমূল সভাপতি শিশির কর্মকার। পোস্টে অভিষেকের একটি তরুণ বয়সের ছবি। আর এই ছবির নীচে লেখা, “ভারতীয় স্বাধীনতা সংগ্রামী অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের অকাল প্রয়াণে আমি গভীরভাবে শোকাহত, তাঁর বিদেহী আত্মার চির শান্তি কামনা করি ও পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাই”। এই ছবির নীচেই দেওয়া শিশির কর্মকারের নিজের একটি ছবিও।

এই ছবি দেখে শাসকদলকে কড়া ভাষায় কটাক্ষ শানালেন বিজেপি নেতা অনুপম হাজরা। অভিষেক চট্টোপাধ্যায় একজন বিশিষ্ট অভিনেতা ছিলেন। তাঁকে স্বাধীনতা সংগ্রামী বলে এমন এত বড় ভুল লেখায় প্রবল আপত্তি জানিয়েছেন বিজেপি নেতা। এমনকি, ‘অশিক্ষা’ বলে দাগিয়েছেন তিনি তৃণমূলকে। অনুপম হাজরা এই ছবিটি শেয়ার করে লেখেন, “মাত্রাতিরিক্ত দেশাত্মবোধ এবং অশিক্ষার সঙ্গমস্থল হলো তৃণমূল কংগ্রেস; আশা করি এদের ক্ষমা করে দেবেন আমাদের প্রিয় প্রয়াত অভিনেতা শ্রী অভিষেক চট্টোপাধ্যায়!!! তাও ভালো “চট্টোপাধ্যায়”এর জায়গায় “বন্দ্যোপাধ্যায়” লেখেন নি!!!”

অনুপম হাজরার এই পোস্টে নানান মানুষ শাসকদলের প্রতি ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন।

বলে রাখি, গত বৃহস্পতিবার খবর মেলে যে অভিষেক চট্টোপাধ্যায়ের মৃত্যু হয়েছে। গোত্র বুধবারও শুটিং করেছেন তিনি। শুটিং ফ্লোরেই অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন অভিনেতা। তাঁর অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করতে চাইলেও তিনি ভর্তি হতে চান নি। এরপর সেদিন তাঁর ১টা নাগাদ মৃত্যু হয় তাঁর। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৫৮ বছর।

Related Articles

Back to top button