রাজ্য

আজই তৃণমূলে ওয়াপসি হতে পারে অর্জুন সিংয়ের, সেজে উঠল ব্যারাকপুর, ভাটপাড়া, ঘাসফুলে ফেরা নিয়ে কী বললেন বিজেপি সাংসদ?

শনিবার রাত থেকেই চারিদিকে রি রি পড়ে গিয়েছে একটাই খবরে যে আজ, রবিবার ফের তৃণমূলে (TMC) ফিরতে পারেন ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং (Arjun Singh)। বিগত বেশ কিছুদিন ধরেই কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক নিয়ে প্রশ্ন উঠেছিল। এদিকে, বিজেপির রাজ্য (Bengal BJP) নেতৃত্বকে নিয়েও একাধিকবার তোপ দেগেছেন তিনি।

কিছুদিন আগে পাটশিল্পে ঊর্ধ্বসীমা বাড়াতে কেন্দ্রের সঙ্গে বিবাদে জড়ান অর্জুন। তারে সফলও হয়েছেন তিনি। আর এর মধ্যেই জল্পনা বাড়ল ত্রার তৃণমূলে ফেরা নিয়ে। গতকাল বিকেলেই ব্যারাকপুর, জগদ্দল, ভাটপাড়া, কাঁকিনাড়াতে পোস্টারে পোস্টারে ছয়লাপ। পড়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের হোর্ডিং আর সেই হোর্ডিংয়েই রয়েছে অর্জুন সিংয়েরও হাতজোড় করা ছবি। পোস্টারে লেখা ‘স্বাগতম’। শোনা যাচ্ছে, আজ রবিবার বিকেল চারটে নাগাদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের অফিসে তৃণমূল পতাকা হাতে তুলে নেবেন অর্জুন।

এরপরই অর্জুনের দলবদল নিয়ে জল্পনা আরও বাড়ে। দলবদলের জল্পনার মধ্যেই ফের ইঙ্গিতপূর্ণ ফেসবুক পোস্ট করলেন অর্জুন। সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি লেখেন, “যাঁরা আমার ভিত্তি নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন, তাঁরা নিজেদের দিকে দেখুন”।

ফের শায়েরি পোস্ট বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং গতকাল, শনিবার লেখেন, “শুনা হ্যায় আজ সমন্দর কো খুদ পে গুমান আয়া হ্যায়।  উধর হি লে চলো কসতি, যাঁহা তুফান আয়া হ্যায়”।  যার অর্থ, “শুনেছি, সমুদ্র আজ নিজেকে নিয়ে গর্বিত। যেখানে ঝড় উঠেছে সেখানেই নিয়ে চলো নৌকা”।

এখানেই প্রশ্ন উঠছে যে সাগর বলতে কী বোঝাতে চেয়েছেন? আর ঝড় বলতেই বা কী বোঝাতে চাইছেন? বিজেপি সাংসদের দলবদলের জল্পনার মধ্যেই নতুন ইন্ধন জুগিয়েছে এই শায়েরি।

অর্জুনের দলবদলের এই জল্পনা নিয়ে কটাক্ষ করা হয়েছে বিজেপির তরফেও। এবার এটাই দেখার যে অর্জুন একাই তৃণমূলে ফেরেন নাকি তাঁর ছেলে তথা ভাটপাড়ার বিজেপি বিধায়ক পবন সিংকে নিয়ে ঘাসফুল শিবিরে ওয়াপসি করেন।

Related Articles

Back to top button