সব খবর সবার আগে।

WB Election 2021: একুশের ভোটে বিজেপির টার্গেট শহরাঞ্চল, ভদ্র-শ্রেণীর ভোট জিততে নয়া কৌশল গেরুয়া শিবিরের

কলকাতা-সহ পশ্চিমবঙ্গের শহরকেন্দ্রিক আসনগুলিকে এবারের নির্বাচনের লক্ষ্য করেছে গেরুয়া শিবির। ভদ্রলোক শ্রেণীকে হাতিয়ার করে বৈতরণী পার করতে উদ্যোগী পদ্ম শিবির। এই কারণে ভদ্রশ্রেনীর ভোট  জয়ের জন্য মূলত দুটি বার্তা প্রেরণ করা হচ্ছে বিজেপির পক্ষ থেকে। এক, রাজ্যে চলতে থাকা আইনশৃঙ্খলা নিয়ে প্রশ্ন ও দুই, অদূর ভবিষ্যতে সীমান্ত সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে তাদেরও, এই নিয়ে শহরবাসীর মনে প্রশ্ন তোলা।

বাংলার শহরাঞ্চলের রাশ মোটামুটিভাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাতেই থাকে। তবে একুশের নির্বাচনের জন্য গেরুয়া শিবির এই শহরবাসীদের প্রভাবিত করতে তৎপর হয়েছে। তাদের তারা বোঝাতে সক্ষম হয়েছে যে তৃণমূলের আমলে তারা নিরাপদ নয়। মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে যে তাদের আপস করার দরকার নেই, এও বিজেপি শহরবাসীদের বোঝাতে সক্ষম।

আরও পড়ুন- করোনার জের, আজই বন্ধ হওয়ার পথে কুম্ভমেলা, সম্ভাবনা দৃঢ়

শহরবাসীর কাছে এই বার্তা পৌঁছে দিতেই গত মঙ্গলবার বিধাননগর বিধানসভা এলাকায় সমাবেশ করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ও বুদ্ধিজীবীদের সঙ্গে বৈঠক সারেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডা। গত সপ্তাহেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নামে কলকাতার নানান জায়গায় হোর্ডিং ও পোস্টার পড়েছে।

শনিবার রয়েছে পঞ্চম দফার ভোট। এর আগেই শহরাঞ্চলে অনুপ্রবেশের সমস্যা নিয়ে সরব হয়েছে গেরুয়া শিবির। তাদের মতে, সেই দিন আর বেশি দূরে নয় যখন অনুপ্রবেশের সমস্যা সীমান্ত থেকে কলকাতাতেও প্রবেশ করবে। কেবল বিজেপিই পারে এই সমস্যার নিরসন করতে, এমনটাই বোঝাচ্ছে পদ্ম শিবির।

বাংলায় ৩৪ বছর ধরে বামেরা শাসন করেছে। প্রগতিশীল ভোটারদের কেন্দ্র হিসেবে পরিচিত ভদ্রশ্রেণী দীর্ঘদিন বামেদের সঙ্গেই ছিল। এদের মধ্যে একটি বড় অংশ ২০১১ সালে তৃণমূলে চলে যায়। এবার তাদেরকেই কিছু বুদ্ধিজীবী সভা ও পথসভার মাধ্যমে বিজেপিতে আনতে উদ্যোগী গেরুয়া শিবির।

আরও পড়ুন- অভিনব প্রচার, সাধারণ মানুষকে হনুমান চল্লিশা বিলি করলেন এই বিজেপি প্রার্থী!

কলকাতার ১১টি আসনে ২০১৬ সালের নির্বাচনে জয় হয় তৃণমূলের। ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে তিনটি বিধানসভা কেন্দ্রে এগিয়ে যায় বিজেপি। এবার ফের সেই লক্ষ্যেই এগোতে চায় তারা। কলকাতার ৫০ শতাংশ আসন জেতাই এখন গেরুয়া শিবিরের লক্ষ্য।

You might also like
Comments
Loading...