রাজ্য

রাজনৈতিক সৌজন্যতা! মুখ্যমন্ত্রীর সভা মিটতেই রাস্তায় গড়াগড়ি খাচ্ছে তৃণমূলের দলীয় পতাকা, সযত্নে তুলে রাখলেন বিজেপি নেতা

কোনও দলীয় পতাকা যে কোনও দলের জন্যই সম্মানের ও গর্বের। তাই সেই পতাকা রাস্তায় ধুলোয় মিশতে দেখলে কোনও দলীয় নেতাই সহ্য করতে পারবেন না। তাই দলীয় পতাকা রাস্তায় গড়াগড়ি খেতে দেখে তা সযত্নে তুলে রাখলেন এক দলের নেতা। তবে নিজের দলের নয়, বিরোধী দলের পতাকা সযত্নে তুলে নিলেন সেই নেতা।

এমনই রাজনৈতিক সৌজন্যতার ছবি ধরা পড়ল আসানসোলে। আর তা ক্যামেরাবন্দিও করা হল। আসলে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সভার জন্য আসানসোলের চারিদিকে লাগানো তৃণমূলের পতাকা রাস্তায় লুটোপুটি খাচ্ছিল। তা দেখে সেই পতাকাগুলি সযত্নে তুলে রাখলেন বিজেপির আসানসোল জেলা সম্পাদক বাপ্পা চট্টোপাধ্যায়।

দু’দিন আগেই আসানসোলে সভা করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে এখনও রাস্তাঘাটে নানান জায়গায় রয়েছে তৃণমূলের পতাকা। সেই পতাকাই রাস্তায় পড়ে ধুলোতে মিশে গড়াগড়ি খাচ্ছিল। আসানসোলের উত্তর বিধানসভা এলাকার জাতীয় সড়কের ধারে তৃণমূলের পতাকা পড়েছিল।

এই দৃশ্য চোখে পড়ে বিজেপির আসানসোল জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক বাপ্পা চট্টোপাধ্যায়ের। তা দেখার পরই তৎক্ষণাৎ গাড়ি থেকে নেমে নিজে পতাকাগুলি তুলে রাখেন তিনি। তাঁর কথায়, “যে দলেরই হোক না কেন, সেটা সম্মানের জিনিস। তাই পতাকা রাস্তায় পড়ে আছে দেখে আমি তুলে রাখলাম”।

এই প্রসঙ্গে আসানসোল পুরনিগমের চেয়ারম্যান তৃণমূল কংগ্রেস নেতা অমরনাথ চট্টোপাধ্যায় বলেন, “হয়ত হাওয়ার কারণে বা অন্য কোন কারণে পতাকাগুলো পড়ে গিয়েছে। বাপ্পা তুলে রেখেছে ভালো কথা। আমাদের কর্মীরা সেগুলা নিয়ে আসবে”।

Related Articles

Back to top button