রাজ্য

‘২০২৪ আগে কেন্দ্রীয় সরকার সিএএ লাগু না করলে, জীবন মরণ আন্দোলন করব’, হুঁশিয়ারি শানালেন বিজেপির মতুয়া বিধায়ক

মাঝে কয়েকদিন থামার পর ফের একবার সিএএ নিয়ে সরব বিজেপির মতুয়া বিধায়কের। এই নিয়ে মোদী-শাহ্‌’র বিরুদ্ধে সরাসরি আন্দোলনে নামার হুঁশিয়ারি দিলেন বিজেপি বিধায়ক অসীম সরকার। আর এরপরই মতুয়াদের বিক্ষোভের আঁচ করছে বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব।

গতকাল, রবিবার দুপুরে ফেসবুকে একটি পোস্ট করেন হরিণঘাটার বিজেপি বিধায়ক অসীম সরকার। সেই পোস্টে সিএএ লাগু করা নিয়ে চাঞ্চল্যকর মন্তব্য করেন তিনি। বেশ চেনা সুরেই রাজ্যের শাসক দল ও মুখ্যমন্ত্রীকে তোপ দাগেন তিনি। এতদূর পর্যন্ত সব ঠিকই ছিল। কিন্তু তাঁর এই পোস্টের শেষাংশ নিয়েই তৈরি হল বিতর্ক।

পোস্টের শেষে বিজেপি বিধায়ক লেখেন, “আমি আগেই বলে দিয়েছি, ২০২৪ সালের আগে যদি কেন্দ্রীয় সরকার সিএএ লাগু করে উদ্বাস্তুদের নাগরিকত্ব সুরক্ষার জন্য অনলাইনের মাধ্যমে প্রত্যেকের সিটিজেনশিপ কার্ডের ব্যবস্থা না করেন, তাহলে আমি আপনাদের সঙ্গে করে জীবন মরণ আন্দোলনের জন্য পথে নামব। সেই ভাবে আপনারা তৈরি থাকুন। হাজার হাজার শেয়ার করুন। সবাইকে জানিয়ে দিন”। নিজের পোস্টে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শান্তনু ঠাকুরের নামও টেনে এনেছেন অসীম সরকার।

বলে রাখি, সম্প্রতি বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার বলেছিলেন, “বিজেপি যা বলে তা করে। রামমন্দির কেন্দ্রীয় বিজেপির লক্ষ্য ছিল। আইন ছাড়াই আমরা তা করে দেখিয়েছি। সিএএ আমাদের লক্ষ্য। আমরা করে দেখাব, ২০২৪ সালের অনেক আগেই”।

সুকান্ত মজুমদারের এমন দাবীতে স্বাভাবিকভাবেই নানান জল্পনা শুরু হয়েছিল। প্রশ্ন উঠেছিল যে আদৌ কী ২৪-এর লোকসভা নির্বাচনের আগে রাজ্যে সিএএ লাগু হবে? এই সিএএ-কে হাতিয়ার করেই আগামী লোকসভা নির্বাচনে জনসমর্থন আদায় করতে উদ্যত গেরুয়া শিবির। আর এরই মধ্যে বিজেপি বিধায়কের এহেন বিতর্কিত পোস্ট। এই নিয়ে জল কতদূর গড়ায়, এখন সেটাই দেখার।

Related Articles

Back to top button