রাজ্য

‘যারা কাজ করতে চাইছেন, তাদের কাজ করতে দেওয়া হচ্ছে না’, ফের দলের সংগঠন নিয়ে বিস্ফোরক অর্জু্ন

ফের একবার দলীয় সংগঠন নিয়ে বিস্ফোরক দাবী করলেন ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং(Arjun Singh)। আজ, শুক্রবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন, “সংগঠনের অবস্থা ঠিক নেই। বিজেপিকে(BJP) ঘুরে দাঁড়াতে হলে সংগঠন ঠিক করতে হবে। যারা কাজ করতে চায় তারা কাজ করতে পারছে না। যারা সংগঠন করতে পারবে তাদের দায়িত্ব দিতে হবে”। এরই সঙ্গে তিনি এও জানান যে এই বিষয়টি তিনি বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডাকে( J P Nadda) জানিয়েছেন। আর তিনি কোনও ঠিক পদক্ষেপ নেবেন বলেই আশাবাদী অর্জুন।

প্রসঙ্গত, এর আগেও রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব নিয়ে প্রকাশ্যেই সুর চড়িয়েছেন বিজেপি সাংসদ। এর জেরে তাঁর রাজনৈতিক অবস্থান নিয়েও প্রশ্ন উঠতে শুরু করে। এরপরই বিজেপি কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের তরফে তড়িঘড়ি দিল্লিতে ডেকে পাঠানো হয় অর্জুনকে। ওয়াকিবহাল মহলের মতে, অর্জুনকে শান্ত করতেই দিল্লিতে দেকে পাঠানো হয় তাঁকে। সেই সময় অর্জুন বলেছিলেন, “পেনের কালি ভরে দিতে হবে। শুধু পেন দিলেই হবে না”।

আর এবার দিল্লি থেকে ফিরে আসার পরেও সেই একই সুর শোনা গেল ব্যারাকপুরের সাংসদের গলায়। যদিও প্রকাশ্যে এভাবে দলের রাজ্য নেতৃত্বের বিরুদ্ধে সরব হওয়ায় ইতিমধ্যে বিক্ষুব্ধ তকমা পেয়েছেন অর্জুন। এই প্রসঙ্গে এদিন তিনি অর্জুনের বক্তব্য, “দলের সংগঠনের অবস্থা ঠিক নেই। এটা আমরা সবাই বুঝতে পারছি। কেউ প্রকাশ্যে বলছে আর কেউ পিছনে বলছে”।

তবে অর্জুনের আশা কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব রাজ্যে দলকে ঘুরে দাঁড়াতে পদক্ষেপ নিশ্চয়ই করবে। তিনি জানান যে তিনি এই গোটা বিষয়টি কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে জানিয়েছেন। তিনি বলেন, “নাড্ডাজি কীভাবে সাংগঠন মজবুত করবেন, সেটা তিনি দেখবেন। আমি অনেকগুলো প্রস্তাব ওনাতে দিয়েছি। যেগুলো করলে সংগঠন মজবুত হবে বলে আমার মনে হয়েছে, সেগুলো নড্ডাজিকে জানিয়েছি”।

এদিকে আবার পাটের ঊর্ধ্বসীমা তুলে দেওয়ার পর পাটের কারখানাগুলি খুলতেও উদ্যত হয়েছেন অর্জুন। তাঁর কথায়, “এই ইস্যুটা নিয়ে যত তাড়াতাড়ি সমস্যা মিটে যাবে, ততই বন্ধ কারখানাগুলি খোলার ক্ষেত্রে অনেকটা সুবিধা পাওয়া যাবে। মজুরি নিয়ে সমস্যার জেরেই প্রতি বছর ১০-১৫টা করে কারখানা বন্ধ হচ্ছে। এই সমস্যা দূর হবে”।

Related Articles

Back to top button