রাজ্য

‘ডিসেম্বরের মধ্যেই অনেক তৃণমূল কাউন্সিলর-বিধায়কই বিজেপিতে যোগ দেবেন’, বিস্ফোরক দাবী করলেন বিজেপি সাংসদ

মালদায় বিস্ফোরক দাবী করলেন বিজেপি সাংসদ খগেন মুর্মু (Khagen Murmu)। তিনি বলেন যে জেলার এক তৃণমূল বিধায়ক (TMC MLA), একজন প্রাক্তন বিধায়ক ও চারজন কাউন্সিলর (TMC Councilor) তৃণমূল ছেড়ে বিজেপি (BJP) যোগদান করতে পারেন। এমনই দাবী করলেন বিজেপি বিধায়ক (BJP MLA)।

বিজেপি সাংসদ আরও দাবী করেন যে তৃণমূল নেতারা বিজেপি প্রথম সারির নেতাদের সঙ্গে ইতিমধ্যেই চূড়ান্ত আলোচনা করে ফেলেছেন। এই বিষয়ে বিজেপির কেন্দ্রীয় কমিটিতে আলোচনা শুরু হয়েছে। আগামী ডিসেম্বরের মধ্যেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে।  

বিজেপির দাবী, বিজেপিতে আসার জন্যে মালদা জেলায় একটা ঢল নামতে ইতিমধ্যেই শুরু করেছে। ফের নতুন করে অনেক তৃণমূল নেতা যোগাযোগ করেছেন। তৃণমূল ছেড়ে অনেক কর্মী-সমর্থক এরমধ্যেই বিজেপির হয়ে কাজ শুরু করেছে জেলার নানান প্রান্তে। তবে প্রথম সারির নেতা যাঁরা আসতে চাইছেন তাঁদের জন্যে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে দলের কেন্দ্রীয় কমিটি।

বিজেপি নেতা খগেন মুর্মু বলেন, “তৃণমূল এখন তোলামুল পার্টিতে পরিণত হয়েছে। আর আমাদের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীজী এখন বিশ্ব বরেন্য নেতা। তাই ওনার প্রতি আগ্রহ তৈরি হয়েছে সকলের। এখন তৃণমূলে মানুষ আর থাকতে চায়। এমনকী এখন তৃণমূলের নির্বাচন প্রতিনিধিরা দল ছে়ড়ে ভারতীয় জনতা পার্টিতে যোগদানের জন্য আগ্রহ দেখাচ্ছে”।

এরপর তিনি আরও বলেন, “তৃণমূলের মধ্যেও গোষ্ঠী কোন্দল শুরু হয়েছে। এখন যে অবস্থা দলের ডিসেম্বর মাস অবধিও সরকার টিকবে কি না সেই আশঙ্কায় নিজেদের দল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করতে চাইছে। তবে আমাদের পার্টির একটা মতাদর্শ রয়েছে। কাদের নেওয়া হবে দলে তা কেন্দ্রীয় কমিটি ঠিক করবে”।

এই বিষয়ে তৃণমূলের মালদা জেলা সভাপতি আবদুর রহিম বক্সীর অভিযোগ, “এই সব বলে বিজেপি বিভ্রান্ত করতে চাইছে। মালদায় তৃণমূল যথেষ্ট শক্তিশালী”। তবে তৃণমূলের অন্দরে এই নিয়ে বেশ শোরগোল পড়ে গিয়েছে।  

Related Articles

Back to top button