সব খবর সবার আগে।

বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্কের ফল! যুবকের ক্ষত-বিক্ষত লাশ উদ্ধার পূর্ব বর্ধমানে

পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েছিলেন। তার ফলস্বরূপ নিজের প্রাণটাই দিয়ে দিতে পূর্ব বর্ধমানের আউসগ্রামের যুবক নাসিরুল শাহ্কে!

রাতভর নিখোঁজ থাকার পর যুবকের ক্ষতবিক্ষত দেহ উদ্ধারের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। ইতিমধ্যেই দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে পুলিশ।

আরও পড়ুন:কয়লা পাচার কান্ডে রাশ টানছে ইডি! নজরে আর‌ও ১২ ব্যবসায়ী

পূর্ব বর্ধমান জেলার আউশগ্রামের ভেদিয়ার কাঁটাটিকুরি গ্রামের বাসিন্দা ওই যুবক শ্রমিকের কাজ করতেন। সংসারে ছিলেন বাবা, মা ও স্ত্রী। জানা গিয়েছে কিছুদিন যাবৎ, প্রতিবেশী এক বিবাহিত মহিলার সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন ওই যুবক। দুই পরিবারের মধ্যে বিষয়টি জানাজানি হয়ে গিয়েছিল। চলছিল তীব্র অশান্তিও।

যুবকের স্ত্রী বারবার তাঁকে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক থেকে সরে আসার কথা বলেছিলেন। কিন্তু স্ত্রীকে অবজ্ঞা করে পরকীয়াতেই মত্ত ছিলেন নাসিরুল।

ঘটনার দিন অর্থাৎ শনিবার সন্ধেয় বাড়ি থেকে বের হন নাসিরুল। রাত বাড়লেও বাড়ি ফেরেননি তিনি। এলাকায় খোঁজখবর করেও তাঁর হদিশ পাননি পরিবারের সদস্যরা। পরে সকালে ভেদিয়া এলাকা থেকে উদ্ধার হয় নাসিরুলের ক্ষতবিক্ষত দেহ। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ। তাঁরা দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, খুন করা হয়েছে যুবককে। তবে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট এলে বিষয়টি স্পষ্ট হবে l

আরও পড়ুন:জোটে ফাটল স্পষ্ট! আব্বাসের দলকে মালদহ-মুর্শিদাবাদ থেকে একটিও আসন ছাড়ল না কংগ্রেস

নিহতের বাবা যুবকের বাবা মুনাই শেখ জানিয়েছেন, কাঁটাটিকুরি গ্রামের পাশে মেলা চলছে। শনিবার সন্ধেয় মেলায় যাওয়ার নাম করে তাঁর ছেলে বাড়ি থেকে বের হন। রবিবার সকালে ভেদিয়া বাগদিপাড়ার কাছে রেলসেতুর তলায় তাঁর দেহটি পড়ে থাকতে দেখা যায়। বুকের নিচে বাঁ দিকে এবং কানের কাছে গভীর আঘাতের চিহ্ন ছিল। মুনাই শেখের কথায়, “ছেলে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে গিয়েছিল বলে শুনেছি। বউমার সঙ্গে নিত্য অশান্তি হত। ওই সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে আসতে বলত বউমা। কিন্তু ছেলে শোনেনি। পরিণতি এমনটা হবে ভাবিনি।” পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, পরকীয়ার কারণেই যুবকের এই পরিণতি নাকি নেপথ্যে অন্য কোনও রহস্য লুকিয়ে রয়েছে তা জানার চেষ্টা চলছে।

You might also like
Comments
Loading...