রাজ্য

সারদার আমানতকারীদের টাকা ফেরাতে বড় উদ্যোগ নিল কলকাতা হাইকোর্ট, জারি হল একাধিক নির্দেশও

এবার সারদার আমানতকারীদের টাকা ফেরত দেওয়ার জন্য বড় উদ্যোগ নিল কলকাতা হাইকোর্ট। চিটফান্ড সংস্থা সারদার আমানতকারীদের টাকা ফেরত দেওয়ার জন্য সেবি, সিবিআই, ইডি নানান কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলিকে একযোগে টাকা ফেরত দিতে বলা হয়েছে। বিচারপতি ইন্দ্রপ্রসন্ন মুখোপাধ্যায় ও বিচারপতি শুভেন্দু সামন্তর ডিভিশন বেঞ্চের তরফে এই  নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আদালতের নির্দেশ, সেবি, সিবিআই, ইডি ও রাজ্যকে সারদার বিক্রি হওয়া সম্পত্তির টাকা প্রাক্তন বিচারপতি এস পি তালুকদারের নেতৃত্বাধীন এক সদস্যের কমিটির কাছে জমা দিতে হবে। এও বলা হয়েছে যে সম্পত্তি এখনও বিক্রি হয়নি, সেই সম্পত্তি এক সদস্যের কমিটির হাতে তুলে দিতে হবে।

ডিভিশন বেঞ্চের তরফে স্পষ্ট নির্দেশ দেওয়া হয়েছে যে ওই এক সদস্যের কমিটির তরফে সারদার আমানতকারীদের টাকা ফেরত দেওয়ার উদ্যোগ নেওয়া হবে। এছাড়াও, সেবির হাতে যে তিনটি সম্পত্তি রয়েছে, তাও নিলাম করে সেই টাকা এই কমিটির হাতেই তুলে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে হাইকোর্টের তরফে। শ্যামল সেন কমিশন বন্ধ হওয়ার পর এবার হাইকোর্টের নির্দেশে সারদার আমানতকারীরা তাদের প্রতারিত হওয়া অর্থ ফেরত পেতে চলেছেন বলেই আশা করা যাচ্ছে।

সারদা মামলায় আইনজীবী শুভাশিস চক্রবর্তী আবেদন জানিয়েছিলেন যে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে সারদা মামলায় সিবিআই তদন্ত শুরু করলেও পরে এই মামলার সঙ্গে যুক্ত হয় ইডি ও সেবি। এর আগে রাজ্যের হাতে যখন এই মামলার তদন্ত ছিল, সেই সময় কিছু সম্পত্তি উদ্ধার করা হয়েছিল। কিন্তু আমান্তকারীদের খোয়া যাওয়া টাকা ফেরত দেওয়ার উদ্যোগ এ পর্যন্ত কোনও সংস্থাই সেভাবে নেয়নি। আইনজীবীর সেই আবেদন মেনেই গতকাল, সোমবার আমানতকারীদের টাকা ফেরত দিতে কড়া নির্দেশ দেয় আদালত।

শুভাশিসবাবু জানান যে এখনও রাজ্য সরকারের হাতে সারদার উদ্ধার হওয়া প্রায় ১৪০ কোটি টাকা রয়েছে। সেবি, সিবিআই, ইডি-র হাতে থাকা প্রায় ১২০০-১৩০০ কোটি টাকা রয়েছে। সবমিলিয়ে প্রায় ১৫০০ কোটি টাকা আমানতকারীদের ফেরাতে হবে। এবার দীর্ঘ জটিলতার জট কাটিয়ে আমানতকারীরা সেই টাকা ফেরত পাবে বলেই আশা করা হচ্ছে।

Related Articles

Back to top button