রাজ্য

গরু পাচারকাণ্ডে নয়া তথ্য! অনুব্রত ও তাঁর ঘনিষ্ঠদের অ্যাকাউন্টে ঢুকেছে ১০ কোটি, ব্যাঙ্ক আধিকারিককে জেরা করছে সিবিআইয়ের

গরু পাচারকাণ্ডে (cattle smuggling case) ধৃত অনুব্রত মণ্ডলকে (Anubrata Mandal) দিল্লি নিয়ে যাওয়ার তোড়জোড় করছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। গত সপ্তাহেই সিবিআইয়ের (CBI) দুই আধিকারিক গিয়েছিলেন আসানসোল সংশোধনাগারে। তবে এবার অনুব্রত ও তাঁর ঘনিষ্ঠদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ১০ কোটি টাকা ঢোকার তথ্য মিলল। সেই বিষয়ে তদন্ত করতে এবার বোলপুরে পৌঁছল সিবিআই।

সূত্রের খবর, গতকাল, বুধবার সন্ধ্যায় বোলপুরের সিবিআইয়ের অস্থায়ী ক্যাম্পে পৌঁছেছেন সিবিআই আধিকারিকরা। সেখানেই এক বেসরকারি ব্যাঙ্কের এক আধিকারিককে ডেকে পাঠানো হয় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য। কার অ্যাকাউন্টে কত টাকা জমা পড়েছিল, তা খতিয়ে দেখতে চান সিবিআই আধিকারিকরা। আরও কয়েকজন ব্যাঙ্ক আধিকারিকের সঙ্গে কথা বলতে চান তদন্তকারী আধিকারিকরা, এমনটাই জানা গিয়েছে।

বলে রাখি, গত ১৯শে নভেম্বর আসানসোল সংশোধনাগারে যায় সিবিআইয়ের একটি বিশেষ দল। এর পরদিনই অসুস্থ বোধ করেন অনুব্রত। বুকে ব্যাথা বলে দাবী করেন তিনি। তড়িঘড়ি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাঁকে।

সেখানে তাঁকে পরীক্ষা করে চিকিৎসকরা জানান যে তেমন কোনও সমস্যা ধরা পড়ে নি কেষ্টর। মেডিসিন ও সার্জারির চিকিৎসকরাও দেখেছেন তাঁকে, তবে খারাপ কিছু মেলেনি। আগে তিনি যেসমস্ত ওষুধ খেতেন, তাই-ই খাচ্ছেন। সবমিলিয়ে বলা যায় যে অনুব্রত এখন ভালোই আছেন।

এদিকে, আসানসোল জেলা সংশোধনাগারে যান সিবিআইয়ের দুই আধিকারিক। গরু পাচারকাণ্ডে অনুব্রতকে দিল্লি নিয়ে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন তারা। এর মধ্যেই আজ সিবিআই এসপি রাজীব মিশ্র আসেন আসানসোল বিশেষ সিবিআই আদালতে। অর্থাৎ, কেষ্টকে যে দিল্লি নিয়ে যাওয়ার তোড়জোড় তদন্তকারী সংস্থা বেশ কোমর বেঁধেই করছে, তা বলাই বাহুল্য।

Related Articles

Back to top button