রাজ্য

শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতির ‘মাস্টারমাইন্ড’ পার্থই, এসএসসি গ্রুপ সি নিয়োগ দুর্নীতির চার্জশিট পেশ করে জানাল সিবিআই

ইডির পর এবার নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে কোমর বেঁধে নেমেছে সিবিআইও। এসএসসি গ্রুপ সি নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় আজ আলিপুর আদালতে চার্জশিট জমা দিল সিবিআই। এই চার্জশিটে নাম রয়েছে রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়-সহ মোট ১৬ জনের। এই দুর্নীতিতে কার কী ভূমিকা ছিল, তাও উল্লেখ করা হয়েছে এই চার্জশিটে।

কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশেই এসএসসি নিয়োগ দুর্নীতির তদন্ত করছে সিবিআই। তদন্ত শুরুর ৫১ দিনের মাথায় আলিপুর আদালতে নিয়োগ দুর্নীতিতে প্রথম চার্জশিট জমা দিয়েছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। আজ, শুক্রবার আলিপুর আদালতে চার্জশিট জমা দেয় সিবিআই। ওই চার্জশিটে নাম রয়েছে শান্তিপ্রসাদ সিনহা, কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়, অশোক সাহা-সহ মোট ১৬ জনের।

এই চার্জশিটে ছয় নম্বরে নাম রয়েছে রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের। সূত্রের খবর অনুযায়ী, নিয়োগ দুর্নীতিতে কার কেমন ভূমিকা ছিল তা উল্লেখ করা হয়েছে ওই চার্জশিটে। চার্জশিটে বলা হয়েছে যে এসএসসি নিয়োগ দুর্নীতি বৃহত্তর একটা ষড়যন্ত্র। রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং শান্তিপ্রসাদ সিনহাকে অন্যতম মাস্টারমাইন্ড হিসাবে উল্লেখ করা হয়েছে এই চার্জশিটে।

প্রসঙ্গত, গত ২৩শে জুলাই রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বাড়ি হানা দেয় ইডি। রাতভর চলে জেরা। এদিন পার্থর ঘনিষ্ঠ বান্ধবী অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয় কোটি কোটি টাকা। অর্পিতার দুটি ফ্ল্যাট মিলিয়ে উদ্ধার হয় ৫০ কোটি টাকা। এসএসসি নিয়োগ দুর্নীতি কাণ্ডে গ্রেফতার করা হয় পার্থ ও অর্পিতা, দুজনকেই। আপাতত দুজনেই জেল হেফাজতে।

গত বুধবার ইডি আদালতে জানায় যে শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতিতে অঙ্কটা ১৫০ কোটিতে পৌঁছেছে। ইডির থেকে পার্থকে নিজেদের হেফাজতে নেয় সিবিআই। কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায় ও পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করা হয়। আগামী ৩১শে অক্টোবর পর্যন্ত জেলেই থাকবেন পার্থ।

Related Articles

Back to top button