রাজ্য

বিয়ে নিয়ে বিতর্কের মাঝেই গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লেন চন্দনার ‘দ্বিতীয় স্বামী’ কৃষ্ণ, ভর্তি হাসপাতালে

স্বামী ও সন্তানকে ছেড়ে গাড়ির চালককে তথা দলের এক কর্মীকে বিয়ে করার অভিযোগ উঠেছে শালতোড়ার বিজেপি বিধায়ক চন্দনা বাউরির বিরুদ্ধে। এরই মধ্যে খবর এল যে চন্দনা সেই ‘দ্বিতীয় স্বামী গুরুতর অসুস্থ নহ্যে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

গতকাল, শনিবার চন্দনা বাউরির দ্বিতীয় স্বামী কৃষ্ণ কুণ্ডুকে অসুস্থতার কারণে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। বাঁকুড়া মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে তিনি ভর্তি রয়েছেন বলে জানা গিয়েছে।

আরও পড়ুন- ‘কাশ্মীরের ধৈর্যের বাঁধ ভাঙলে ভালো হবে না’, তালিবানের প্রসঙ্গ টেনে মোদীকে হুঁশিয়ারি মুফতির 

কৃষ্ণ কুণ্ডুর প্রথম পক্ষের স্ত্রীর দাবী, এই ‘দ্বিতীয় বিয়ে’ নিয়ে এত আলোচনা, এত বিতর্ক কেচ্ছার জেরেই তাঁর স্বামী অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। কৃষ্ণ কুণ্ডুর প্রথম স্ত্রী চন্দনার বিরুদ্ধে দ্বিতীয় বিয়ের অভিযোগ তোলেন। তিনি জানান যে চন্দনা বাউরি তাঁর স্বামীকে বিয়ে করেছেন।

তবে এই সমস্ত অভিযোগ নাকোচ করে দিয়েছেন বিধায়ক চন্দনা বাউরি। তাঁর দাবী, তাঁকে বদনাম করার জন্য তাঁর বিষয়ে এই কুৎসা রটানো হচ্ছে। এদিকে তবে হাসপাতালে কৃষ্ণর পাশে তাঁর প্রথম স্ত্রীকেই দেখা গিয়েছে। তবে তিনি নিজের অভিযোগে অনড়। তাঁর দাবী, চন্দনাই তাঁর স্বামীকে বিয়ে করেছেন। আর এখন তিনি তা অস্বীকার করছেন। এর জেরে তাঁর স্বামীর শরীর খারাপ হয়ে গিয়েছে বলেও অভিযোগ তাঁর।

কিছুদিন আগেই অভিযোগ ওঠে, বিধায়ক চন্দনা বাউরি তাঁর স্বামী ও তিন সন্তানকে ছেড়ে গাড়ির চালক কৃষ্ণ কুণ্ডুকে বিয়ে করেছেন। এরপরই তাঁকে সঙ্গে নিয়েই গঙ্গাজলঘাঁটি থানায় নিরাপত্তার দাবীতে হাজির হন চন্দনা। রাতভর সেখানেই ছিলেন তিনি।

আরও পড়ুন- পুলিশের উর্দি নেই, সিভিল ড্রেসেই সজল ঘোষের বাড়ি তল্লাশি করল পুলিশ, আদালতে যেতে পারেন বিজেপি নেতা

সকালে তাঁর নিজস্ব নিরাপত্তারক্ষীরা পৌঁছলে গাড়ি করে শ্বশুরবাড়ি ফিরে যান তিনি। পরে সেখান থেকেই ফেসবুকে লাইভে এসে তিনি জানান যে তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত অভিযোগ মিথ্যে। তাঁকে বদনাম করার জন্য এই কুৎসা রটানো হচ্ছে। বিধায়কের দাবী, তিনি নাকি পারিবারিক অশান্তি মেটাতে থানায় গিয়েছিলেন।

Related Articles

Back to top button