সব খবর সবার আগে।

ঘুমন্ত অবস্থায় গলায় পড়ল ধারালো অস্ত্রের কোপ! অস্ত্র উঁচিয়েই জানালা দিয়ে পালালো আততায়ী!

রাতে আর‌ও অনেকের মতোই মায়ের সঙ্গে ঘুমোচ্ছিল মেয়ে, আচমকাই মেয়ের আর্তনাদে ঘুম ভেঙে মা দেখেন মেয়ের গলা দিয়ে ছুটছে অঝরে রক্ত। আর জানলা দিয়ে পালাচ্ছে আততায়ী। মায়ের সঙ্গে বিছানায় ঘুমোচ্ছিলেন ওই তরুণী, বাবা শুয়েছিল মাটিতে। প্রচন্ড গরম তাই ঘরের জানলা আর পাঁচ দিনের মতোই খোলা ছিল। আর তাতেই ঘটে গেল এক নৃশংস ঘটনা। বাড়িতে ঢুকে ঘুমন্ত অবস্থায় তরুণীর গলায় কোপ মেরে খুন করল ঘাতক যুবক। তারপর সকলের সামনেই অস্ত্র উঁচিয়ে জানলা দিয়ে লাফ মেরে পালাল। ঘটনাটি ঘটেছে মুর্শিদাবাদের দৌলতাবাদের সলুয়া গ্রামে।

বহরমপুর কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্রী মর্শিদা খাতুন শনিবার রাতে বাবা-মায়ের সঙ্গেই এক ঘরে ঘুমোচ্ছিলেন। অভিযোগ, কোনওভাবে ঘরের দরজা দিয়ে ঢুকে পড়ে ওই যুবক। সকলে যখন ঘুমন্ত অবস্থায় ছিল তখনই ধারালো অস্ত্র দিয়ে ছাত্রীর গলায় কোপ দেয় সে। মুর্শিদার আর্তনাদে ঘুম ভেঙে যায় তাঁর বাবা-মায়ের। অভিযোগ, ধারালো অস্ত্র তুলে ধরেই জানলা দিয়ে লাফ দিয়ে পালায় যুবক। রক্তাক্ত ছাত্রীকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার আগেই মৃত্যু হয় তার।

ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে দৌলতাবাদ থানার পুলিশ। প্রাথমিক তদন্তের ভিত্তিতে এক জনকে আটক করেছে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে তাঁকে। এই ঘটনার পিছনে পুরনো প্রেমঘটিত কোনও কারণ রয়েছে কিনা, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

You might also like
Leave a Comment