সব খবর সবার আগে।

বিদ্যুৎমন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের পুজোয় ঠিকাদারদের অনুদান ১০ লক্ষ, ধরা পড়তেই বলা হল, ‘এটা তো ভুয়ো চেক’

একটি চেকের ছবি নিয়ে এবার তোলপাড় শুরু হল সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে। বিদ্যুৎমন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের পুজোয় ১০ লক্ষ টাকার অনুদান পাওয়া নিয়ে মন্ত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ আনল বিজেপি। তাদের দাবী, মন্ত্রীর পুজোয় ঠিকাদার সংস্থার এই অনুদান দেওয়া দেখেই বোঝা যায় যে তৃণমূল কতটা স্বচ্ছতার সঙ্গে রাজ্য চালাচ্ছে।

যে চেকের ছবি ভাইরাল হয়েছে তাতে দেখা যাচ্ছে যে চেকটি হল কানাড়া ব্যাঙ্কের অ্যাকাউন্ট পে চেক। এতে অর্থের পরিমাণ লেখা ১০ লক্ষ টাকা। আর চেকটি হল ডব্লিউবিএসইডিসিএল কনট্র্যাক্ট্রর্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের। এই চেকের নীচে সংস্থার সম্পাদক ও কোষাধ্যক্ষের সই রয়েছে। আর তারিখের জায়গায় তারিখ দেওয়া ১২ই অক্টোবর, ২০২১-এর। অর্থাৎ আগামীকাল, মঙ্গলবারের। এই চেকটি ইস্যু করা হয়েছে অরূপ বিশ্বাসের পুজো সুরুচি সঙ্ঘের নামে।

এই চেকের ছবি শেয়ার করে বিজেপি নেতা রীতেশ তিওয়ারি টুইটারে লেখেন, “একজন মন্ত্রী ঠিকাদারদের থেকে টাকা নিয়ে পুজো অনুষ্ঠিত করছেন। এতেই বোঝা যাচ্ছে তৃণমূল কতটা সৎ ও স্বচ্ছ”। রীতেশের আরও প্রশ্ন, ওই ঠিকাদার সংস্থা কেন অরূপ বিশ্বাসের পুজোয় টাকা দিল?

এই বিষয়ে ওই সংস্থার সাধারণ সম্পাদক শিশির বন্দ্যোপাধ্যায় জানান যে তারাও সেই চেকটি দেখেছেন। আর তাতে তাঁর ও কোষাধ্যক্ষেরই সই রয়েছে। কিন্তু তিনি এও জানান যে তাদের সংস্থার অ্যাকাউন্টে ১০ লক্ষ টাকাই নেই।

তিনি বিষয়টি খোলসা করে বলতে গিয়ে বলেন যে তাদের সংস্থার সভাপতির বাড়ি পুরুলিয়ায় ও কোষাধ্যক্ষের বাড়ি কাকদ্বীপে। এই কারণে তারা আগের থেকেই কিছু চেকে সই করে রেখে দেন যাতে কোনও কর্মী বিপদে পড়তে তাঁর আর্থিক সাহায্য পেতে সুবিধা হয়। শিশিরবাবুর কথায়, এই চেকটিও তেমনই একটি চেক কিন্তু তাতে টাকার অঙ্ক, তারিখ ও সুরুচি সঙ্ঘের নাম বসানো হয়েছে।

শিশিরবাবুর কথায় তাদের সংস্থাকে কালিমালিপ্ত করার জন্য এমনটা করা হয়েছে। তিনি এও বলেন যে তাঁর মতে, এই চেক পুজো উদ্যোক্তাদের হাতে পৌঁছয় নি। এই বিষয়ে অরূপ বিশ্বাসের সঙ্গে তিনি কথা বলবেন বলে জানান শিশির বন্দ্যোপাধ্যায়। এমনকি, প্রয়োজনে থানাতেও অভিযোগ করা হতে পারে বলে জানান তিনি।

কোনও বড় পুজোতে ঠিকাদারদের অনুদান দেওয়া নতুন বিষয় নয়। কিন্তু বিদ্যুৎমন্ত্রীর পুজোতে বিদ্যুৎ দফতরের ঠিকাদার সংস্থার ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন এমন আর্থিক সংকটের সময় এতগুলো টাকা অনুদান দিয়েছে, এ নিয়ে রাজনৈতিক চর্চা শুরু তো হবেই। তবে এই বিষয়ে অরূপ বিশ্বাসের থেকে এখনও কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি।

You might also like
Comments
Loading...