সব খবর সবার আগে।

মহামারীর কথা খেয়াল রেখে করমুক্ত হোক অক্সিজেন সিলিন্ডার, ওষুধ! মোদীকে চিঠি মমতার

বাংলার মসনদে বসে ফের মোদীকে চিঠি দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার বাংলার অতিমারী পরিস্থিতিকে দেখে‌ অক্সিজেনকে করমুক্ত করার আর্জি জানিয়েছেন তিনি।

এই প্রথম নয় এর আগে মমতা চিঠি লিখে করোনার প্রতিষেধক বিনামূল্যে দেওয়ার অনুরোধ করেছিলেন‌।

জানা গেছে এবারের চিঠিতে কোভিডের ওষুধের ট্যাক্স ছাড়ের আবেদন জানিয়েছেন তিনি। সেই সঙ্গে ট্যাক্স ছাড়ের আবেদন জানানো হয়েছে মেডিক্যাল সরঞ্জামের ওপরেও।

আরও পড়ুন- ‘অনেক করেছেন, এবার আমাদেরটা আমাদেরই বুঝে নিতে দিন’, বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ দিলীপের

সূত্রের খবর, এদিন মুখ্যমন্ত্রীর তরফে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে যে চিঠি পাঠানো হয়েছে, সেখানে তিনি স্পষ্টভাবে উল্লেখ করেছেন যে কোভিড পরিস্থিতিতে রাজ্যের যে অবস্থা তৈরি হয়েছে, সেখানে মেডিক্যাল সরঞ্জাম ও অক্সিজেন সিলিন্ডার থেকে শুরু করে কোভিড চিকিৎসায় আরও বিভিন্ন সরঞ্জাম আরও প্রয়োজন। বিদেশ থেকে বিভিন্ন সংগঠন, সংস্থা সেগুলো পাঠাতে চায়। কিন্তু সেই জায়গায় বড় সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের কাস্টমস ডিউটি ও আইজিএসটি অর্থাৎ ইন্টিগ্রেটেড জিএসটি। আবশ্যিক মেডিকেলে সরঞ্জামগুলোকে যাতে সেই কর যাতে মুক্ত করা হয়, তার আর্জি জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি পাঠিয়েছেন তিনি।

আরও পড়ুন-মৃতদেহের ভিড়ে বিকল হচ্ছে চুল্লি! নিমতলা মহাশ্মশান স্তুপাকৃতি ৩০০ মৃতদেহ


প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগেই কেন্দ্রীয় সরকার বিনামূল্য বিতরণের জন্য কোভিড চিকিৎসা সরঞ্জামের আইজিএসটি মকুব করেছিল। কিন্তু নবান্নের দাবি, আইজিএসটি মকুবের ক্ষেত্রে কিছু আইনি জটিলতা রয়েছে। সম্প্রতি দিল্লি হাইকোর্টের একটি নির্দেশ এই কর মকুব করতে বলেছিল। সবদিক থেকে যাতে করমুক্ত করা যায় তার জন্য‌ই এই চিঠি পাঠানো হয়েছে কেন্দ্রে।

মুখ্যমন্ত্রী দাবি করেছেন, প্রায় সব পক্ষ থেকেই করোনার প্রয়োজনীয় সামগ্রীর উপর থেকে কর ছাড়ের দাবি তোলা হয়েছে। কিন্তু রাজ্য সরকার এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারছে না কারণ, এটি পুরোটাই কেন্দ্রীয় সরকারের সিদ্ধান্তের উপর নির্ভর করছে।

You might also like
Comments
Loading...