রাজ্য

কালো প্লাস্টিকে দেহ মুড়ে দায় সারল পৌরসভা,১৮ ঘন্টার ওপর দেহ আগলে পরিবার

করোনায় মৃত্যু হয়েছে বৃদ্ধের। জানানোর পর কালো প্লাস্টিকে দেহ মুড়ে দিয়ে চলে গেল পৌরসভা। তারপর থেকে ১৮ ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে দেহ আঁকড়ে বসে রয়েছে পরিবার l

প্রসঙ্গত, গতকাল রাত সাড়ে দশটার পর মারণ ভাইরাসে মৃত্যু হয় বেলঘড়িয়ার নীলগঞ্জ রোডের আবাসনের বাসিন্দা সুকুমার ভট্ট’র(৮৬)। কয়েক দিন আগেই তাঁর করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজেটিভ আসে। তার পর থেকে ঘরেই ছিলেন তিনি। রবিবার রাত দশটার পর তাঁর প্রবল শ্বাসকষ্ট শুরু হয়ে। বাড়ির লোকজন সঙ্গে সঙ্গেই তাঁকে নিয়ে যান জেনিথ হাসপাতালে। কিন্তু হাসপাতালে পৌঁছনোর আগেই তাঁর মৃত্যু হয়।

রাস্তাতেই সুকুমারবাবুর মৃত্যু হয়েছে বুঝতে পেরে দেহ ঘরে নিয়ে চলে আসেন পরিবারের লোকজন। খবর দেওয়া হয় স্থানীয় এক চিকিত্সককে। তিনি এসে ডেথ সার্টিফিকেট দিয়ে যান। এরপর কামারহাটি পুরসভায় খবর দেওয়া হল সেখান থেকে পুরসভার কর্মীরা এসে মৃতদেহ কালো পলিথিন দিয়ে মুড়ে দিয়ে যান। কিন্তুুু সেই  যে জান তার পর থেকে আর কোন‌‌ও খবর নেই। বলে বাড়িতেই পড়ে ছিল মৃতদেহ। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে চূড়ান্ত আতঙ্ক ছড়িয়েছে  ওই আবাসনে।

 

Related Articles

Back to top button