রাজ্য

SSKM হাসপাতাল থেকে উধাও এক করোনা রোগী, অবশেষে খোঁজ মিলল বাড়িতে

কিছুদিন আগেই মেডিকেল কলেজ থেকে এক রোগী হেঁটে বাড়ি চলে যান আর সে বিষয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ কিছুই জানতে পারেননি। এবার এসএসকেএম থেকেও এক করোনা রোগী বেরিয়ে গেলেন অথচ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ কিছুই টের পেলেন না। হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে তিনি হেঁটেই পৌঁছন অশোকনগরের বাড়িতে! রোগী নিখোঁজের ঘটনাকে ঘিরে হাসপাতাল চত্বরে চাঞ্চল্য ছড়ায়।

এক গাড়ি দুর্ঘটনায় মাথায় গুরুতর চোট পেয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন পঞ্চাশ বছর বয়স্ক ওই ব্যক্তি। তিনি ভরতি ছিলেন এসএসকেএম-এর ট্রমা কেয়ার বিভাগে। এরপর স্বাভাবিক নিয়মেই তাঁর করোনা পরীক্ষা করা হলে তার ফলাফল পজিটিভ আসে। এরপর তাঁকে হাসপাতালেই চিকিৎসাধীন রাখা হয়। তাঁর বাড়ি ছিল অশোকনগরের কল্যাণগড়ে।

হাসপাতাল সূত্রে খবর, সোমবার দুপুর ২.৩০টে নাগাদ সবার নজর এড়িয়ে তিনি হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে যান। এরপর হঠাৎই তাঁকে নিখোঁজ দেখে SSKM হাসপাতালের ট্রমা কেয়ার বিভাগের লোকেরা ওই রোগীর সন্ধান করতে থাকেন। কিন্তু কোনো হদিস না পেয়ে তাঁরা সিসিটিভির দ্বারস্থ হন। অবশেষে সেখানেই মিলল হদিশ। ফুটেজে দেখা গেল সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি হাতে কম্বল এবং সিরিঞ্জ নিয়ে বেরিয়ে আসছেন হাসপাতাল থেকে। ব্যাস তারপর শুরু হলো আবার খোঁজার পালা। এরই মাঝে নিখোঁজ রোগীর কোভিড রিপোর্ট আসে। যাতে করোনার প্রমাণ মেলে। এরপর আরও চিন্তায় পড়েন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

অবশেষে রাত সাড়ে ৯টা নাগাদ রোগীর খোঁজ মেলে। জানা যায়, তিনি অশোকনগরে নিজের বাড়ি পৌঁছেছেন। কিন্তু অসুস্থ শরীর নিয়ে তিনি কীভাবে এলেন এতটা পথ? জানা গেছে বাড়ি ফিরেও নাকি তিনি স্পষ্ট করে কিছু বলতে পারেননি।

তবে এই ঘটনা প্রসঙ্গে অশোকনগর কল্যাণগড় পৌরসভার প্রশাসক এসএসকেএম হাসপাতালের বিরুদ্ধে অসতর্কতার অভিযোগ তুলেছেন। তিনি প্রশ্ন তুলেছেন, ‘হাসপাতালের কর্মীরা কেন এদিকে নজর রাখেননি?’ তবে কীভাবে এই ঘটনা ঘটল সেই বিষয়েও খতিয়ে দেখার আবেদন রেখেছেন তিনি।

Related Articles

Back to top button