রাজ্য

ফের উদ্ধার কোটি কোটি টাকা! শাসকদলের দুই বিধায়কের বাড়ি থেকে মিলল পাহাড়সম টাকা, নাম জড়াল ১০০ কোটির লেনদেনে

ফের উদ্ধার হল কোটি কোটি টাকা। এবার ঝাড়খণ্ডের দুই কংগ্রেস বিধায়কের বাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছে পাহাড়সম বেহিসাবি টাকা। তাদের থেকে বিনিয়োগের খোঁজও পেয়েছেন আয়কর দফতরের আধিকারিকরা। সেই অর্থের পরিমাণ প্রায় ১০০ কোটি বলে জানা গিয়েছে। এই দুই বিধায়কের সঙ্গে অবৈধ কয়লা ও লোহা বিক্রিরও যোগ রয়েছে বলে খবর। অভিযোগ, গোটা ঝাড়খণ্ডেই এই কর্মকাণ্ড চলত।

সেন্ট্রাল বোর্ড অফ ডিরেক্ট ট্যাক্সেস জানিয়েছে, “গত ৪ নভেম্বর রাঁচি, দুমকা, জামশেদপুর, পাটনা, গোড্ডা, বারমো, চাইবাসা, গুরুগ্রাম এবং কলকাতার প্রায় ৫০টি এলাকায় এই ঘটনার তদন্তে তল্লাশি চালানো হয়”। সেইসময়েই তদন্তে উঠে আসে ওই দুই কংগ্রেস নেতার নাম। তাঁরা হলেন অরূপ সিং এবং প্রদীপ যাদব।

অরূপ সিং বারমোর কংগ্রেস বিধায়ক। সংবাদমাধ্যমে তিনি জানিয়েছেন যে তাঁর রাঁচির বাড়িতে আয়কর বিভাগের আধিকারিকরা তল্লাশি চালিয়েছেন। তাঁর কথায়, তিনি এই তদন্তে সাহায্য করেছেন। অন্যদিকে, আরও এক বিধায়ক প্রদীপ যাদব জেভিএমপি ভেঙে যাওয়ার পর কংগ্রেসে যোগদান করেন। তিনি পোরিয়াহাট কেন্দ্র থেকে দাঁড়িয়ে জয়লাভ করেন।

এই দুই নেতার বাড়ি থেকে দু’কোটিরও বেশি নগদ বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। এর পাশাপাশি এও জানা গিয়েছে যে এখনও পর্যন্ত এই দুই বিধায়কের নাম জড়িয়েছে ১০০ কোটিরও বেশি টাকার লেনদেনে।

বলে রাখি, কয়েকমাস আগেই হাওড়া থেকে ঝাড়খণ্ডের এক কংগ্রেস বিধায়কের গাড়ি থেকে বান্ডিল বান্ডিল টাকা উদ্ধার করে পুলিশ। সেই সময় ঝাড়খণ্ডের তিন বিধায়ককে গ্রেফতার করা হয়েছিল। এরা হলেন রাজেশ কচ্ছপ, নমন বিক্সল কোঙারি এবং ইরফান আনসারি। সেই ঘটনার কথা প্রকাশ্যে আসতেই জাতীয় রাজনীতিতে তুমুল চাঞ্চল্য ছড়ায়।

Related Articles

Back to top button