রাজ্য

‘আফগানিস্তানের সঙ্গে বাংলার কোনও পার্থক্য নেই’, মমতার কটাক্ষের বিরোধিতা করে পাল্টা তোপ দিলীপের

আর বেশিদিন নেই হাতে। ভবানীপুর উপনির্বাচনে প্রচারের জন্য ঝাঁপিয়ে পড়েছে শাসকদল থেকে শুরু করে বিরোধীরা। প্রত্যেকদিনই নানা ওয়ার্ডে চলছে প্রচার। একদিকে নিজের ঘরের কেন্দ্রে লড়ার জন্য তৃণমূল প্রার্থী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যেমন আত্মবিশ্বাসী, তেমনিই অন্যদিকে মমতাকে একচুলও জমি ছেড়ে দিতে নারাজ বিজেপি প্রার্থী প্রিয়াঙ্কা টিবরেওয়াল।

ভবানীপুরের ৭২ নম্বর ওয়ার্ডের পদ্মপুকুর এলাকায় ভোট প্রচারে করতে যান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। হিন্দিভাষী ভোটারদের সঙ্গে বৈঠকে তিনি নাম না নিয়ে তোপ দাগেন বিজেপি নেতাদের। তাদের ‘তালিবান মানসিকতার মানুষ’ বলে আক্রমণ করেন তিনি।

এদিকে আবার আজ, শনিবার তৃণমূল নেত্রীকে পাল্টা তোপ দাগেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। ‘ভোট পরবর্তী হিংসা’র প্রসঙ্গ টেনে শাসকদলকে আক্রমণ করে দিলীপ ঘোষ বলেন, “আফগানিস্তানের সঙ্গে বাংলার কোনও পার্থক্য নেই”।

আরও পড়ুন- মোদীর ৭১তম জন্মদিন! প্রধানমন্ত্রীকে ৭১টি গোলাপ পাঠিয়ে শুভেচ্ছা জানালেন শেখ হাসিনা

প্রচার করতে গিয়ে বিজেপিরকে কটাক্ষ করে তৃণমূল সুপ্রিমো বলেন, “ভারতকে কখনও তালিবান মানসিকতার মানুষদের হাতে তুলে দেওয়া যাবে না। হিন্দুস্তানকে কখনও পাকিস্তান হবে না। ওরা (বিজেপি) নন্দীগ্রামের পর ভবানীপুরকেও পাকিস্তান বলছে। আগামিদিনে বাংলাই দেশকে রক্ষা করবে”।

মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের এই মন্তব্যেরই বিরোধিতা করেন দিলীপ ঘোষ। তিনি পাল্টা আক্রমণ শানিয়ে বলেন, “তালিবান তো বাংলাতেই আছে। আফগানিস্তানের স বাংলার কোনো পার্থক্য নেই। নির্বাচনের পর আমরা যা দেখলাম তা, তালিবানি মানসিকতা। সারা ভারতবর্ষে আর কোথাও তো কারও হিম্মত হয় না, বিরোধীদের উপর অত্যাচার করার। পুলিশ এখানে দাঁড়িয়ে চুপ করে দেখে”।

Related Articles

Back to top button