সব খবর সবার আগে।

“রাজ্যে হিংসাকে ছোট করে দেখা হচ্ছে”, মমতা সরকারের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ দিলীপ ঘোষের

“এই রাজ্যে হিংসা কে ছোট করে দেখা হচ্ছে”, মমতা সরকারের বিরুদ্ধে এরকমই বিস্ফোরক অভিযোগ আনলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। আজ একটি সাংবাদিক বৈঠকে তিনি বিজেপির ভবিষ্যৎ কর্মসূচি নিয়ে বিশদে বলেন। সেই সময় তিনি আরও বলেন যে, সারা পশ্চিমবাংলাতেই বোমা বন্দুকের কারখানা রয়েছে। জেলায় জেলায় বিজেপিকে বাঁধা দিচ্ছে তৃণমূল। রাজ্য সরকার এর বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থাই নিচ্ছে না। দলের নেতা-কর্মীদের শোকজ করে কি হবে? প্রয়োজনে আইনি ব্যবস্থা নিক।

শুধু তাই নয়। ঘূর্ণিঝড় আমফানে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষদের ক্ষতিপূরণ নিয়ে যে দুর্নীতি তৃণমূল করছে তারও প্রসঙ্গ টেনে এনেছেন দিলীপবাবু। তিনি স্পষ্টই বলেন যে ত্রাণ বিলি করতে গিয়ে তৃণমূল কী করছে তা দেখাই যাচ্ছে। এরাজ্যে অপরাধের হার আগের থেকে অনেক বেড়ে গিয়েছে এই সরকারের আমলে। আর এই কথা যখন বিজেপি থেকে বলা হচ্ছে তখন তাঁদের কণ্ঠরোধ করা হচ্ছে এই বলে যে অন্যান্য রাজ্যের থেকে নাকি পশ্চিমবঙ্গে অপরাধের হার অনেক কম! যদিও সঠিক পরিসংখ্যান এই বিষয়ে রাজ্য সরকার দিতে পারছে না।

আগামী ৬ই জুলাই পর্যন্ত রাজ্যে চলবে আর নয় অন্যায় অভিযান। এই অভিযান বিজেপির মানুষের সঙ্গে জনসংযোগকারী একটি অভিযান। দিলীপবাবু জানিয়েছেন এই অভিযানের মাধ্যমে বাংলার প্রায় ৫৩ লক্ষ বাড়িতে পৌঁছেছেন বিজেপি কর্মীরা। এরপরে বিজেপি সদস্য অভিযানে নামবে। আগের বছর এই সদস্য অভিযানে বাংলার প্রায় ৯৮ লক্ষ মানুষ বিজেপি সদস্য হয়েছিলেন যা ভারতের মধ্যে দ্বিতীয় স্থান দখল করেছে, প্রথম স্থানে ছিল উত্তর প্রদেশ।

এই সাংবাদিক বৈঠকে তিনি স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন যে বিজেপির ওপর শাসকদলের হামলা তাঁরা মোটেই ভাল চোখে দেখছেন না। এর জবাব সাধারণ মানুষ আগামী বছর ভোট বাক্সেই দেবেন।

You might also like
Leave a Comment