সব খবর সবার আগে।

‘সিঁদুর লাগিয়ে হিন্দুদের বোকা বানিয়ে ভোট আদায় করেছেন নুসরত’, এবার দিলীপের নিশানায় অভিনেত্রী

নুসরত জাহানকে নিয়ে বিতর্কের অন্ত। প্রতিদিনই কোনও না কোনও বিষয়ে জড়াচ্ছে তাঁর নাম। তাঁর অন্তঃসত্ত্বা হওয়া নিয়ে বিতর্ক তো ছিলই, এবার বিতর্ক স্বামী নিখিল জৈনের সঙ্গে তাঁর বৈবাহিক সম্পর্ক নিয়ে। কারণ, বুধবার একটি বিবৃতি জারি করে নুসরত বলেন যে তিনি নিখিলকে বিয়ে করেননি। তারা সহবাস করেছেন। এবার তাঁর এই মন্তব্যে রাজনৈতিক দিক দিয়েও চাপে পড়েছেন অভিনেত্রী।

গতকাল, বৃহস্পতিবার বসিরহাটে এক সাংগঠনিক সভা করেন দিলীপ ঘোষ। সেখানেই সংবাদমাধ্যমের সামনে নুসরতকে কটাক্ষ করেন তিনি। বিজেপির রাজ্য সভাপতির দাবী, নির্বাচনে ভোট আদায়ের জন্য সিঁদুর লাগিয়ে হিন্দুদের বোকা বানিয়েছেন নুসরত।

আরও পড়ুন- সংসদে মিথ্যে পরিচয় দিয়েছেন সাংসদ নুসরত জাহান, বিজেপির তরফে নেওয়া হতে পারে আইনি পদক্ষেপ 

দিলীপ ঘোষ এদিন বলেন, “বসিরহাটের ভোটাকরা তাঁকে সাংসদ নির্বাচিত করেছেন। এখন আপনারাই ঠিক করুন, উনি বিয়ে করেছেন কী না, কাকে করেছেন, কবে করেছেন। মা হতে চলেছেন, তা নিয়েও প্রশ্ন রয়েছে। ভেবে দেখুন, যাঁকে আড়াই লক্ষের বেশি ভোটে জিতিয়েছেন, তিনি কে বা তাঁর পরিচয় কী? বিয়ে না করে সিঁদুর লাগিয়ে হিন্দুদের বোকা বানিয়ে ভোট নিয়েছেন তিনি। বিষয়টি খুবই লজ্জার। আমার মনে হয় তিনি নির্বাচনের জন্য বিয়ে করেছিলেন। নির্বাচন হয়ে গিয়েছে সত্যি কথা বেরিয়ে এসেছে”।

এদিকে, নুসরতের এই বিষয় নিয়ে নিজেদের দুরেই রেখেছে তৃণমূল। এই ঘটনাকে নুসরতের ব্যক্তিগত বিষয় বলে দেগেছেন তৃণমূলের রাজ্য সম্পাদক কুণাল ঘোষ।

আসলে, গতকাল, বৃহস্পতিবার বিজেপির আইটি সেলের সর্বভারতীয় প্রধান অমিত মালব্য নুসরতের শপথ গ্রহণের সেই ভিডিও-সহ একটি টুইট করেন। বলেন, “তৃণমূল সাংসদ নুসরত জাহান রুহি জৈনের ব্যক্তিগত জীবন, তিনি কাকে বিয়ে করেছেন, কার সঙ্গে লিভ-ইন করছেন সেটা নিয়ে কারও কিছু বলার নেই। কিন্তু তিনি একজন নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি এবং সংসদের রেকর্ড অনুযায়ী তিনি নিখিল জৈনকে বিবাহ করেছেন। তবে কি তিনি সংসদে অসত্য ভাষণ দিয়েছিলেন”?

আরও পড়ুন- প্রটোকল ভেঙ্গে গ্রেফতার করা হয়েছে! সিবিআইকে তুলোধোনা মদন-শোভনের আইনজীবী’র

এই টুইটের জবাবে কুণাল ঘোষ বলেন, “প্রসঙ্গ নুসরত জাহান: বিষয়টি ব্যক্তিগত। এর সঙ্গে রাজনীতি বা দলের কোনও সম্পর্ক নেই। বিজেপির মালব্য এসব নিয়ে টুইট না করাই ভালো। তর্ক শুরু হলে বিজেপির পক্ষে ভাল হবে না”। এই ঘটনার মোড় এবার কোনদিকে যেতে চলেছে, এবার সেটাই দেখার।

You might also like
Comments
Loading...