রাজ্য

লোকাল ট্রেন নিয়ে নতুন নির্দেশিকা জারি করল পূর্ব রেল, জেনে রাখুন, নাহলে পড়বেন বিপদে

লোকাল ট্রেনের নিত্যযাত্রীদের মধ্যে বারবারই একটা অভিযোগ উঠে আসে যে একটু বেলা হতেই অনেক ট্রেনের সাধারণ কামরাতেই উঠে পড়েন ছানা কারবারিরা। গোটা ট্রেনেই এধার-অধার রাখা হয় ছানার বালতি বা ঝুড়ি। এর জেরে যাত্রীদের ট্রেন থেকে ওঠানামা করতে বেশ সমস্যায় পড়তে হয়।

এবার এই বিষয়ে নড়েচড়ে বসল পূর্ব রেলওয়ে। পূর্ব রেলওয়ের তরফে একটি নির্দেশিকা জারি করে জানানো হয়েছে যে এবার থেকে ছানার বালতি বা ঝুড়ি নিয়ে ট্রেনের সাধারণ কামরায় ওঠা যাবে না। ছানা কারবারিদের কেবল ট্রেনের ভেন্ডার কামরাতেই উঠতে হবে। এর ফলে সাধারণ যাত্রীদের ভোগান্তি কিছুটা কমতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

বলে রাখি, কলকাতা সংলগ্ন জেলাগুলি, বিশেষ করে হুগলি-বর্ধমানের মতো জায়গাগুলি থেকে রোজ শয়ে শয়ে কুইন্ট্যাল ছানা আসে কলকাতা শহরের নানান মিষ্টির দোকানগুলিতে। আর সেই ছানা আনতে মূলত ট্রেনের উপরই ভরসা করেন ব্যবসায়ীরা। বিশেষত লোকাল ও প্যাসেঞ্জার ট্রেনে করেই তারা কলকাতায় ছানা নিয়ে আসেন।

বালতি বা ঝুড়িতে পরিস্কার কাপড় দিয়ে বেঁধে ট্রেনে করে এই ছানা নিয়ে আসেন ব্যবসায়ীরা। কিন্তু সেই ছানা থেকে তীব্র গন্ধ ছড়ায় আর এর ফলে ট্রেনে ওঠাই দায় হয়ে যায় অনেক ক্ষেত্রে। আবার ছানার ঝুড়ি থেকে জল চুঁইয়ে বাইরে এসে ট্রেনের কামরা নোংরা করে। এর জেরে সাধারণ কামরায় মানুষ বেশ অসুবিধায় পড়েন,

এই সমস্যা দূর করতে গত শনিবার কৃষ্ণনগরে রেল পুলিশের সঙ্গে বৈঠক হয় ছানা ব্যবসায়ীদের। এই বৈঠকে এই বিষয়গুলি উঠে আসে। এই বৈঠকই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় যে এবার থেকে ভেন্ডার কামরা ছাড়া অন্য কোনও কামরায় ছানার বালতি বা ঝুড়ি তোলা যাবে না। ভেন্ডারের দরজাও বন্ধ করতে পারবেন না তাঁরা। লালগোলা প্যাসেঞ্জার ও লোকাল ট্রেনগুলিতে এই নতুন নিয়ম লাগু হবে বলে জানা গিয়েছে।

Related Articles

Back to top button