সব খবর সবার আগে।

নতি স্বীকার মমতার! টালবাহানার পর অবশেষে রাজ্যে লাগু হচ্ছে প্রধানমন্ত্রী কৃষক সম্মান নিধি যোজনা

এতদিনে পাথর নড়ল। অনেক টালবাহানার পর অবশেষে কেন্দ্রের কাছে মাথা নত করতেই হল মুখ্যমন্ত্রীকে। রাজ্যে চালু হবে মোদী সরকারের কৃষক সম্মান নিধি যোজনা। এমনটাই ঘোষণা করলেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

কেন্দ্র সরকারের এই যোজনার দ্বারা উপকৃত হয়েছেন দেশের প্রায় ৯ কোটিরও বেশি কৃষক। কিন্তু এতদিন বাংলার কৃষকেরা এই সুবিধা থেকে বঞ্চিত ছিলেন। কেন্দ্র সরকারের এই যোজনা রাজ্যে লাগু হওয়ার পথে বাধা হয়েছিলেন খোদ মুখ্যমন্ত্রীই। তবে শেষ পর্যন্ত পিছু হটতেই হল মুখ্যমন্ত্রীকে।

মোদী সরকারের এই যোজনার সুবিধা পেতে রাজ্যের প্রায় ২২ লক্ষ কৃষক অনলাইনে আবেদন করেছিলেন বলে জানা যায়। কিন্তু সেই আবেদনে কোনওরকম ভ্রূক্ষেপ করেনি রাজ্য সরকার। এর জেরে এই প্রকল্প থেকে প্রাপ্ত কোনও সুবিধাই পাচ্ছিলেন না রাজ্যের কৃষক। কিন্তু অবশেষে গতকাল, সোমবার প্রধানমন্ত্রী কৃষক নিধি যোজনা রাজ্যে চালু করার অনুমতি দিলেন মুখ্যমন্ত্রী।

এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নবান্ন থেকে বলেন, “কেন্দ্র সরকারের সব প্রকল্পই রাজ্যে লাগু হয়। আমরাও তাই চাই। কেন্দ্রীয় কৃষি মন্ত্রী আমাকে ফোন করে বলেন যে তারা সরাসরি এই প্রকল্প চালু করতে চান। তখনই বুঝেছিলাম রাজনৈতিক উদ্দেশ্য আছে। তা থাকুক। এখন ভোটের বছর”। এরপর প্রধানমন্ত্রীকে তীর বিঁধে মমতা বলেন যে ভোটের সময় বলেই এখন সকাল বিকেল প্রধানমন্ত্রীর বাংলার কথা মনে পড়ছে। তবে তাঁর দাবী, এই প্রকল্পের মাধ্যমে যদি কৃষকেরা টাকা পায়, তাহলেই ভালো।

রাজ্যে প্রধানমন্ত্রী কৃষক সম্মান নিধি যোজনা লাগু করছেন না মুখ্যমন্ত্রী আফসোস প্রকাশ করতে দেখা গিয়েছে খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে। এক ভাষণে তিনি একথা সরাসরিই বলেন। এই নিয়ে সুর চড়িয়েছেন একাধিক বিজেপি নেতা। শুভেন্দু অধিকারীও এই বিষয়ে রাজ্যকে তোপ দেগে বলেন যে, মুখ্যমন্ত্রী মুখে বলেন কৃষকদের পাশে আছেন, কিন্তু নিজের রাজনৈতিক কারণে রাজ্যকে কৃষক সম্মান নিধি যোজনা থেকে বঞ্চিত করছেন। তিনি দাবী করেন, বিজেপি ক্ষমতায় এলে এই প্রকল্প লাগু হবে রাজ্যে।

এদিকে, রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, শুভেন্দু অধিকারীর এমন ঘোষণা ও একাধিক বিজেপি নেতার কথাতেই চাপের মুখে পড়ে এই যোজনা রাজ্যে চালু করতে তৎপর হয়েছে রাজ্য সরকার। এই যোজনা চালু না করায় দিনে দিনে কৃষকদেরও ক্ষোভ বাড়ছিল। তবে অবশেষে নতি স্বীকার করতেই হল মমতাকে।

You might also like
Comments
Loading...