সব খবর সবার আগে।

‘হিন্দু লাইভস ম্যাটার’, রাজ্যে হিন্দুদের উপর হওয়া অত্যাচারের ঘটনায় মমতাকে ‘জাগাতে’ তৃণমূল দফতরে ব্যানার

ভোটের ফলাফল ঘোষণার পর থেকেই রাজ্যজুড়ে শুরু হয়েছে একাধিক হিংসার ঘটনা। এই নিয়ে অভিযোগও করা হয়েছে একাধিকবার। ভোট পরবর্তী হিংসার ঘটনায় হামলা চালানো হয়েছে হিন্দুদের উপর। তাদের বাড়িঘর ভাঙচুর, তাদের অকথ্য মারধর, সবই চলেছে। ভোট পরবর্তী হিংসার ঘটনা স্বীকার করে নিলেও সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার কথা মোটেই স্বীকার করতে রাজী নন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এবার হিন্দুদের উপর হওয়া এই অত্যাচারের বিরুদ্ধে সরব হলেন হিন্দু সেনা কর্মীরা। ২০১১ সালে স্থাপিত হয় হিন্দু সেনা। এর আগেও তৃণমূল দফতরের সামনে বিক্ষোভ দেখিয়েছে এই দল।

আরও পড়ুন- ‘সিঁদুর লাগিয়ে হিন্দুদের বোকা বানিয়ে ভোট আদায় করেছেন নুসরত’, এবার দিলীপের নিশানায় অভিনেত্রী

গতকাল, বৃহস্পতিবার দিল্লির ৬১ সাউথ অ্যাভিনিউতে অবস্থিত তৃণমূল কংগ্রেস দফতরের সামনে ‘হিন্দু লাইভস ম্যাটার’ ব্যানার পড়ে। দফতরের বাইরে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন হিন্দু সেনারা। সংবাদমাধ্যমকে তারা জানায় যে পশ্চিমবঙ্গে হিন্দুদের উপর যে অত্যাচার চালানো হচ্ছে, সে সম্বন্ধে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে জাগাতে এই বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন তারা।

বলে রাখি, এর আগেও তৃণমূল কংগ্রেস দফতরের সামনে বিক্ষোভ দেখিয়েছে হিন্দু সেনা। ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালে নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর জন্মজয়ন্তী অনুষ্ঠানে ‘জয় শ্রী রাম’ ধ্বনি নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়। সেই সময় তৃণমূল কংগ্রেসের এই দফতরের সামনে পোস্টার লাগিয়ে দেয় হিন্দু সেনারা। পোস্টারে লেখা ছিল, “ভারতে থাকতে গেলে জয় শ্রী রাম বলতে হবে”।

আরও পড়ুন- প্রটোকল ভেঙ্গে গ্রেফতার করা হয়েছে! সিবিআইকে তুলোধোনা মদন-শোভনের আইনজীবী’র 

এছাড়াও, ২০১৬ সালে দিল্লিতে অবস্থিত পাকিস্তানের বিমান দফতরের সামনে হামলা চালায় হিন্দু সেনারা। সেই বছর আবার আমেরিকার নির্বাচনে ট্রাম্পের সমর্থনে প্রার্থনাও করতে দেখা যায় এই হিন্দু সেনাকে।

You might also like
Comments
Loading...