রাজ্য

মুখ্যমন্ত্রীর সেরা স্বাস্থ্যব্যবস্থার চিত্র হাওড়ার সত্যবালা আইডি হাসপাতালে, হাসপাতালের বেডের উপরেই মদ মাংসের আসর বসানো হাসপাতাল কর্মীরা!

আমাদের রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা নিয়ে ভীষণ গর্ববোধ করেন। তিনি গত বছর স্বাস্থ্য সাথী কার্ড এনেছিলেন যাতে সাধারণ মানুষ নামিদামি চিকিৎসা করানোর সুযোগ পায়। কিন্তু এবার বছর ঘুরতেই এমন কান্ড ঘটল হাওড়ার একমাত্র আইডি হাসপাতালে যাতে মুখ পুড়েছে শাসক দলের।

একটি বেসরকারী সংবাদমাধ্যমের তরফে হাওড়ার সত্যবালা আইডি হাসপাতালে অপারেশন চালানো হয়। সেখানেই ফুটে ওঠে এক ভয়ংকর ছবি।সরকারি হাসপাতালে সরকারি কর্মীরা হাসপাতালের বেড এর উপরেই বসিয়েছেন মদ মাংসের আসর!স্যালাইন স্ট্যান্ড সহ বাকি চিকিৎসা সরঞ্জাম রয়েছে ঘরে তার ওপরে নীল রংয়ের বেডে বসে চলছে মাংস কাটা, রয়েছে দেশি মদের বোতল। যে চিত্র দেখে তাজ্জব হয়ে গেছে সাধারণ মানুষ।

জানা গেছে যে, যে চ্যানেলের সাংবাদিকরা এই তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে ছিলেন তাদেরকে মারধর করা হয়েছে। দুপুর দুটো নাগাদ এই আসর বসানো হয়েছে সরকারি হাসপাতালে। সুতরাং বোঝাই যাচ্ছে আমাদের রাজ্যের সরকারি হাসপাতালে স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ঠিক কোথায় পৌঁছেছে। হাওড়ার মত শহরাঞ্চলে এই ঘটনা ঘটছে তাহলে গ্রামের হাসপাতালগুলোতে অবস্থাটা ঠিক কী রকম ভেবেই শিউরে উঠছে সাধারণ মানুষ।

এই ভিডিও দেখে অধিকাংশ নেট নাগরিক মন্তব্য করেছেন যে এটাই হওয়ার ছিল কারণ দিদি যে মদের দাম কমিয়ে দিয়েছেন। বাংলার মানুষের স্বাস্থ্যের সঙ্গে এভাবেই ছেলেখেলা করছে তৃণমূল সরকার। গোটা ঘটনায় হাসপাতালে কর্মীরা ওই সাংবাদিকের দিকে যেভাবে তেড়ে এসেছেন তা দেখে যথেষ্ট বিরক্ত সাধারণ মানুষ। আপনি নিজের চোখে দেখুন সেই ভিডিও:

Related Articles

Back to top button