রাজ্য

‘দালালি বন্ধ করুন, নাহলে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে এখান থেকে চলে যেতে বাধ্য করাব’, ওসিকে হুমকি হুমায়ুন কবীরের, প্রবল বিতর্কে জড়ালেন তৃণমূল বিধায়ক

ফের বিতর্কিত মন্তব্য করে চর্চায় উঠে এলেন মুর্শিদাবাদের ভরতপুরের তৃণমূল বিধায়ক হুমায়ুন কবীর। সরাসরি পুলিশকে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে তাঁর বিরুদ্ধে। এতেই বেশ অস্বস্তিতে শাসকদল। জেলা তৃণমূল সভাপতির তরফে জানানো হয়েছে যে এই বিষয়টি খতিয়ে দেখে দল নিশ্চয় ব্যবস্থা নেবে।

ঠিক কী ঘটেছে?

জানা গিয়েছে, আগামী পয়লা জানুয়ারি মুর্শিদাবাদের ভরতপুরে তৃণমূলের প্রতিষ্ঠা দিবস পালনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্থানীয় নেতা-নেত্রীরা। মুর্শিদাবাদের ভরতপুরের যুব তৃণমূল সভাপতি নজরুল ইসলাম ওরফে টারজান পুলিশের কাছে অনুমতি নিতে যান দলের প্রতিষ্ঠা দিবস পালনে সভা করার জন্য।

কিন্তু ওসি রাজু মুখোপাধ্যায় তাঁকে সাফ জানিয়ে দেন যে তৃণমূলকে ইতিমধ্যেই প্রতিষ্ঠা দিবস পালনের জন্য সভা করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এই কারণে নতুন করে আর কোনও সভার অনুমতি দেওয়া যাবে না। তাতেই বেশে ক্ষিপ্ত হন বিধায়ক হুমায়ুন কবীর।

গতকাল, শুক্রবার প্রস্তুতি সভায় উপস্থিত দলীয় কর্মীদের সামনেই পুলিশকে সরাসরি হুমকি দিয়ে বসেন তিনি। ভরতপুর থানার ওসির উদ্দেশে বিধায়ক বলেন, “যদি ওসি থাকার ইচ্ছা হয় তাহলে দালালি বন্ধ করুন। না হলে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে তোমাকে এখান থেকে চলে যেতে বাধ্য করাব। তোমার চেয়ারে গিয়ে বসব। টেবিলের উপর পা তুলে দেব। তখন তুমি বুঝতে পারবে হুমায়ুন কবীর কি জিনিস। অটোমেটিক তুমি এখান থেকে চলে যাবে। বলবে আমি ভাটপাড়ায় বেশ ছিলাম, ভাটপাড়াতে চলে যাব”।

এর পাশাপাশি তিনি আরও বলেন, “আমি জেলা তৃণমূল নেতাদের তোয়াক্কা করি না। এলাকার তৃণমূল নেতা, থানার ওসি কাউকে পাত্তা দিই না। প্রয়োজনে আমি বেআইনি কাজ করতেও পিছপা হব না”।

নিমেষে ভাইরাল হয়েছে হুমায়ুন কবীরের এই ভিডিও। এই ভিডিওর সত্যতা যাচাই করে নি খবর ২৪x৭। আর এই ভিডিওকে হাতিয়ার করেই মাঠে নেমেছে বিরোধী দল। তাদের দাবী, হুমায়ুন কবীরের এমন মন্তব্য থেকেই তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব স্পষ্ট।

বিধায়কের এহেন বিতর্কিত মন্তব্যের অস্বস্তিতে পড়েছে ঘাসফুল শিবির। এই প্রসঙ্গে জেলা তৃণমূল সভাপতি সায়নী সিংহ রায় বলেন, “বিধায়ক কী বলেছেন জানিনা। বিতর্কিত কিছু বলা উচিত নয়। দল নিশ্চয়ই বিষয়টি খতিয়ে দেখবে”।

Related Articles

Back to top button