রাজ্য

‘যিনি দুর্নীতির মাথাকে চেনেন, ধেড়ে ইঁদুর কে জানেন, তাঁকে সাক্ষী হিসেবে আদালতে আনুন’, বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়কে পরোক্ষভাবে কটাক্ষ কুণালের

কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে বারবার শাসক দলকে তোপ দেগেছেন। এবার নাম না করেই বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়কে টুইট করে বিঁধলেন তৃণমূলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ।

কিছুদিন আগেই কমিশনকে কার্যত হুঁশিয়ারি শানিয়ে বিচারপতি বলেছিলেন, “কমিশনের অফিসে ভূরি ভূরি দুর্নীতি হয়েছে। নির্ভয় হন। ধেড়ে ইঁদুর বেরোবে”।

তাঁর এই মন্তব্যের প্রেক্ষিতে টুইট করে পরোক্ষভাবে বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়কে আক্রমণ শানিয়ে কুণাল লেখেন, “র্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান চলুক। অপরাধীরা শাস্তি পাক। যদি কেউ সব জানেন, ‘মাথা’ চেনেন, ‘ধেড়ে ইঁদুর’ জানেন বলে ভাব দেখিয়ে প্রচার চান, তাঁকে অবিলম্বে সেই মামলায় সাক্ষী হিসেবে তদন্তে ডেকে পাঠানো হোক। যিনি সব জানেন, তিনি শুধু সংলাপ দিয়ে মেগাসিরিয়াল চালাবেন কেন? আসুন তদন্তে”।

কুণালের এই টুইট নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় শুরু হয়েছে সমালোচনা। এক টুইটার ব্যবহারকারী কুণালের উদ্দেশে বলেন, “এ তো চোরের মায়ের বড়ো গলা। আপনি নিজে সারদা মামলায় জড়িত। আপনার চার্জশিটে নাম আছে তাই না!! আর আপনার ঐ সি.বি.আইকে দেওয়া ভিডিও, আপনি বলেছিলেন না, সারদা ঘটনায় সবথেকে বেশী যে বেনিফিসারি সে নাকি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, তা আপনি আপনার ঐ কথাতেই এখনো আছেন তো”।

আবার অন্য এক টুইটার ব্যবহারকারী বলেন, “কুণাল তুই চোর, তোর মূর্খ্যমন্ত্রী চোর, তার ভাইপো চোর, তৃণমূলের মন্ত্রীরা চোর,জেলা সভাপতি চোর,তৃণমূলের সব নেতা চোর, তোদের থেকে রাস্তার কুকুরও ভাল, উনি জুডিশিয়ারিতে বসে আছেন বলে সবটা বলতে পারছেন না কিন্তু বাংলার মানুষ জেনে গেছে কে চোরেদের ঢাকি আর কারা তার দালাল, সাবধান”।

Related Articles

Back to top button