সব খবর সবার আগে।

এ কী কাণ্ড! স্বামী বিবেকানন্দের জন্মদিনে নেতাজির ছবিতে মাল্যদান তৃণমূলের, করা হল পতাকা উত্তোলনের প্রস্তুতিও

গতকাল ছিল ১২ই জানুয়ারি অর্থাৎ স্বামী বিবেকানন্দের জন্মদিন। ১৫৯তম জন্মবার্ষিকী ছিল এদিন স্বামীজির। এদিন দেশজুড়ে পালন করা হয়েছে স্বামী বিবেকানন্দের জন্মোৎসব। এদিন উপলক্ষ্যে বিশেষ বার্তা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। কিন্তু এদিনই এক বিরল ঘটনার সাক্ষী থাকল রাজ্যবাসী।

এদিন স্বামী বিবেকানন্দের বদলে নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ছবিতে মাল্যদান করা হয়। ঘটনাটি ঘটে মালবাজার পুরসভার পম্পা সিনেমা হলের মোড় লাগোয়া এলাকায়। পরে অবশ্য নেতাজির ছবি সরিয়ে সেই জায়গায় রাখা হয় বিবেকানন্দের ছবি।

সদ্যই ওই এলাকায় তৃণমূলের ১৩ নম্বর ওয়ার্ডের নির্বাচনী কার্যালয় খোলা হয়েছে। সেই তৃণমূলের উদ্যোগেই এদিন এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল বলে দাবী স্থানীয়দের। সূত্রের খবর অনুযায়ী, এদিন নেতাজির ছবি বসিয়ে তাতে মালা পরিয়ে পতাকা উত্তোলনের তোড়জোড় শুরু করেন কার্যালয়ের সদস্যরা।

এমন কাণ্ড দেখে বেশ হতভম্ব হয়ে যান স্থানীয় বাসিন্দারা। তারা যখন বুঝে উঠতে পারছেন না যে কী করবেন, সেই সময় ১১ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা যিনি দিন দুয়েক আগেই বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন, সেই যুবক এই ভুল শুধরে দেন।

এরপরই দ্রুত নেতাজির ছবি সরিয়ে বসানো হয় বিবেকানন্দের ছবি। মুলতুবি করে দেওয়া হয় জাতীয় পতাকা উত্তোলনও। এ দিন সেখানে উপস্থিত ছিলেন না তৃণমূলের বিদায়ী পুরবোর্ডের ১৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর উৎপল ভাদুড়ী। তবে খবর পেয়ে তিনি বলেন, “ভুল শুধরে দেওয়া হলেও এই খবরে আমি মর্মাহত”।

এদিকে তৃণমূল শহর কমিটির তরফে দাবী করা হয়েছে যে কোনও শহর কমিটির নেতা সেখানে ছিলেন। থাকলে এমন ভুল হত না।

এই ঘটনায় মালবাজার টাউন তৃণমূল সভাপতি অমিত দে বলেন, “এই অনুষ্ঠানের দলীয় অনুমোদন নেই, দলের কোন উল্লেখযোগ্য নেতাও ছিলেন না”।

You might also like
Comments
Loading...