রাজ্য

‘যত পারো টাচ মি, এসো আমায় জড়িয়ে ধরো’, ‘ডোন্ট টাচ মি’ মন্তব্যের প্রেক্ষিতে ফের শুভেন্দুকে খোঁচা দিয়ে কটাক্ষ মদনের

এর আগেও এই বিষয় নিয়ে তিনি তোপ দেগেছেন। এবার ফের একবার রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীকে (Suvendu Adhikari) বেলাগাম আক্রমণ করলেন কামারহাটির তৃণমূল বিধায়ক মদন মিত্র (Madan Mitra)। শুভেন্দুর ‘ডোন্ট টাচ মাই বডি’ মন্তব্যের প্রেক্ষিতে ফের একবার নন্দীগ্রামের বিধায়ককে খোঁচা কামারহাটির বিধায়কের।

গতকাল, বুধবার এক অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে মদন মিত্র বলেন, “আমি বলি টাচ মি, টাচ মি, টাচ মি… যত পারো টাচ মি। এসো আমায় জড়িয়ে ধরো। আমি তোমায় সঙ্গে নিয়ে চলে মাকে জড়িয়ে ধরি। মা দুর্গাকে জড়িয়ে ধরি। কখনও মুখ দিয়ে বের হবে না – ডোন্ট টাচ মাই বডি। আমি অ্যাম মেল। আমি নিশ্চিত যে আমি পুরুষ। আমার মনে কোনও বিভ্রান্তি নেই”।

এর আগে শুভেন্দুকে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ ওঠে মদন মিত্রের বিরুদ্ধে। সেই সময় তিনি বলেছিলেন, “যাঁরা বলছেন ডোন্ট টাচ মাই বডি, আই অ্যাম মেলস। যদি দলের নির্দেশ আসে ১০ মিনিট লাগবে না, ওসব ঘটি-বাটি মুড়িয়ে অন্য জায়গায় ফেরত পাঠিয়ে দেব”,

বলে রাখি, ১৩ই সেপ্টেম্বর নবান্ন অভিযানের দিন সাঁতরাগাছিতে শুভেন্দু অধিকারীর নেতৃত্ব দেওয়া মিছিল আটকায় পুলিশ। সেই সময় এক মহিলা পুলিশকর্মীর উদ্দেশে শুভেন্দু বলেছিলেন, “ডোন্ট টাচ মাই বডি, আপনি লেডি, আই অ্যাম মেলস”।

তাঁর সেই মন্তব্যকে কটাক্ষ করে তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে বলতে শোনা গিয়েছিল, “মহিলা পুলিশকর্মীকে উনি (পড়ুন শুভেন্দু অধিকারী) বলেন আমি ‘মেলস’ আপনি মহিলা। ডোন্ট টাচ মি। এখন বুঝতে পারছি, সুদীপ্ত সেন যদি পুরুষ না হয়ে মহিলা হতেন অর্থাৎ সুদীপ্তা হতেন, তা হলে ওনার কাছ থেকে তিনি টাকা নিতেন না। বা নারদ স্টিং কাণ্ডে ম্যাথু স্যামুয়েল না গিয়ে যদি অ্যাঞ্জেলিনা স্যামুয়েল যেতেন তা হলেও উনি টাকা নিতেন না”।

শুধু তাই-ই নয়, শুভেন্দুর এই মন্তব্যকে কেন্দ্র করে তাঁর না না নিয়েই তাঁকে আক্রমণ করেছিলেন তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ। তিনি বলেন, “কোনও এক জন নেতা, যাঁর নাম বলব না, শুভেন্দুর কথা বলছি না, কিন্তু সেই নেতা যৌন বিকৃত, হোমোসেক্সুয়াল, সমকামী। তাঁর এক দেহরক্ষীকে বিকৃত যৌনতা দেখাতে গিয়েছিলেন। সেই দেহরক্ষী বাইরে সব বলে দেবেন, এই ভয়ে তাঁকে খুন করা হয়েছে। আত্মহত্যা বলে চালানো হয় সেই ঘটনা। সেই নেতা কে”?

Related Articles

Back to top button