সব খবর সবার আগে।

অবশেষে খুলছে মাঝেরহাট ব্রিজ, আগামী সপ্তাহেই শুভ উদ্বোধন

অবশেষে অনেক জল্পনার পর ফের চালু হতে চলেছে মাঝেরহাট ব্রিজ। আগামী ৩রা ডিসেম্বর সর্বসাধারণের জন্য খুলে যাবে এই ব্রিজ। এদিন মাঝেরহাট ব্রিজের ফের একবার উদ্বোধন করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

দ্বিতীয় হুগলী সেতু কেবল ব্রিজের আদলে মাঝেরহাট ব্রিজ তৈরি করা হয়েছে। লোড-টেস্টিং সহ যাবতীয় কাজ শেষ হয়েছে বেশ কিছুদিন আগেই। শুধুমাত্র উদ্বোধনের অপেক্ষাতেই দিন গোনা চলছিল। এবার সেই অপেক্ষার অবসান ঘটল। রেল লাইনের উপর এই ব্রিজ অবস্থিত হওয়ায় ব্রিজ চালু করতে রেলের ছাড়পত্রের প্রয়োজন ছিল। গত শুক্রবারই সেই ছাড়পত্র এসে পৌঁছয় নবান্নে। তারপরই ব্রিজ চালু করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে রাজ্য সরকার।

গতকাল, শনিবার, পূর্তমন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস সংবাদমাধ্যমকে জানান, সোমবার আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন তিনি। এদিনই ঠিক করা হবে, আগামী ৩রা ডিসেম্বরের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সূচী কী হতে চলেছে।

গত বৃহস্পতিবার মাঝেরহাট ব্রিজ চালু করার প্রয়োজনীয় ছাড়পত্র না দেওয়ার জন্য রেলকে দোষারোপ করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেদিনই এই ব্রিজ চালু করার দাবীতে তারাতলা থেকে মাঝেরহাট পর্যন্ত মিছিল করে বিজেপি। এই মিছিল নিয়ে বাঁধে ধুন্ধুমার কাণ্ড। পুলিশের সঙ্গে মতবিরোধে জড়িয়ে পড়েন বিজেপি সমর্থকেরা। পাল্টা তৃনমূল দাবী করে রেলের জন্যই চালু করা যাচ্ছে না ব্রিজ। অবশেষে রেলের ছাড়পত্র মিলল।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালে রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে ভেঙ্গে পড়ে মাঝেরহাট ব্রিজ। এর জেরে বেহালা-সহ কলকাতার নানান জায়গার সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। বিকল্প রাস্তা ও বেইলি ব্রিজ থাকলেও মানুষের দুর্ভোগ চরমে উঠে। এই ব্রিজ পুনর্গঠনের দায়িত্ব নেয় রাজ্য সরকার। মাঝেরহাট ব্রিজ পুনরায় চালু হলে কলকাতাবাসীর দুর্ভোগ অনেকটাই কমার সম্ভাবনা রয়েছে।

You might also like
Comments
Loading...