রাজ্য

গান স্যালুটের মাধ্যমে বিদায় জানানো হবে ‘ইয়ুথ আইকন’কে, কেকে’র মৃত্যুতে ঘোষণা মমতা, দ্রুত ফিরছেন কলকাতা

গতকাল রাতটা বোধ হয় এক গোটা প্রজন্মের কাছে কী ভয়াবহ রাতটাই না ছিল। আচমকা কেকে’কে হারিয়ে সকলেই যেন স্তব্ধ। কী বলা যায় বা কী আদৌ বলা উচিত, তা যেন ঠাওর করতেই পারছিলেন না অনেকেই। গানের মধ্যে দিয়েই না ফেরার দেশে তলিয়ে গেলেন বিখ্যাত গায়ক। কলকাতার মাটিতেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলেন কেকে।

কেকে’র মৃত্যুতে তাঁর অনুরাগীরা নির্বাক। বলার যেন ভাষাই নেই। শোকাহত মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেও। সেই কারণেই গায়ককে শেষবারের মতো দেখার জন্য নির্ধারিত সময়ের আগেই বাঁকুড়া থেকে কলকাতা ফিরছেন তিনি।

গতকাল, মঙ্গলবার বাঁকুড়ায় প্রশাসনিক বৈঠক ছিল মুখ্যমন্ত্রীর। আজ, বুধবার বেলা ১২টার সময় এক কর্মীসভায় যোগ দেওয়ার কথা ছিল তাঁর। তবে সেই কর্মসূচির সময় এগিয়ে সকাল ১০টা ৩৫ মিনিটেই সভামঞ্চে হাজির হন মমতা। এদিন নিজের বক্তব্যের শুরুতেই তিনি গায়ক কেকে’র এই অকাল প্রয়াণের জন্য শোকপ্রকাশ করেন।

মমতা জানান যে ইতিমধ্যেই কেকে’র তাঁর স্ত্রী জ্যোতিকৃষ্ণর সঙ্গে তাঁর ফোনে কথা হয়েছে। তিনি চেষ্টা করবেন যতটা দ্রুত সম্ভব কলকাতায় ফিরে শেষবারের মতো কেকে’কে যাতে শেষ দেখা দেখতে পারেন। মুখ্যমন্ত্রী এও জানান যে গতকাল রাত থেকেই গোটা বিষয়টি দেখভাল করছেন মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস। রয়েছে পুলিশও।

কেকে’র এই অকাল মৃত্যু যেন মেনে নিতে পারছে না দেশবাসী। গোটা দেশ বলা ভুল, বিশ্বের নানান মানুষজনও কেকে’র পরম ভক্ত। হিন্দি তো বটেই, এর পাশাপাশি বাংলা ও আরও নানান আঞ্চলিক ভাষায় গান করেছেন কেকে। তাঁর এই আকস্মিক মৃত্যুতে শোকাহত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। কেকে’কে ভাই সম্বোধন করে তিনি জানিয়েছেন যে কেকে’র মরদেহ কলকাতা ছাড়ার আগে দমদম বিমানবন্দরে তাঁকে গান স্যালুট জানানো হবে।

টুইট করে মমতা লেখেন, “আমার আজ ১২টায় কর্মীসভা করার কথা ছিল। কিন্তু আজ একটু আগে ফিরব। ঠিক করেছি ১১ট ১৫-২০ মিনিট নাগাদই বেরিয়ে পড়ব। সোজা চলে যাব অন্ডাল। কারণ দুপুরে প্রায় সাড়ে ৩টে পর্যন্ত আবহাওয়া খুব খারাপ থাকবে। তাই অন্ডাল থেকে ফ্লাইটে দমদম বিমানবন্দরে যাব। সেখানে ভাই কেকে’র স্মৃতির উদ্দেশ্যে গান স্যালুট দেওয়া হবে”।

কেকে’র মৃত্যু সংবাদ পাওয়ার পরও শোকপ্রকাশ করে টুইট করেছিলেন মমতা। বাঁকুড়া সফর নির্ধারিত সময়ে শেষ করে এবার দ্রুত কলকাতায় ফেরার তোড়জোড় শুরু করলেন মুখ্যমন্ত্রী।

Related Articles

Back to top button