রাজ্য

৮৯ হাজার নতুন পদে শিক্ষক নিয়োগ, দুর্নীতি নিয়ে নানান বিতর্কের মাঝেই বড় ঘোষণা করলেন মমতা

বর্তমানে নিয়োগ দুর্নীতি (corruption) নিয়ে রাজ্য ও রাজনীতি বেশ উত্তাল। আর এই বিতর্কের মাঝেই শিক্ষাক্ষেত্রে বিপুল নিয়োগের কথা জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। ৮৯ হাজার শিক্ষক নিয়োগ করা হবে বলে জানান তিনি। এর পাশাপাশি আগামী ১৫ দিনের মধ্যে ৩০ হাজার যুবক-যুবতীকে নিয়োগপত্র দেওয়া হবে বলেও জানান মুখ্যমন্ত্রী।

গতকাল, সোমবার বিশ্ব বাংলা মেলা প্রাঙ্গণে শিক্ষারত্ন প্রদানের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানেই নতুন শিক্ষক নিয়োগের বিষয়টি তুলে ধরেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রী যে পরিসংখ্যান দেন, সেই অনুযায়ী ইতিমধ্যেই ২ লক্ষ ৬৩ হাজার শিক্ষক ও অশিক্ষক পদে নিয়োগ করা হয়েছে। এতদিনে আরও অনেক পদে নিয়োগ করা হত বলে জানান মমতা।

তবে একের পর এক জনস্বার্থ মামলার জেরে তা হচ্ছে না বলে আক্ষেপ করে মমতা। তাঁর কথায়, “কিছু কিছু লোক আছে যারা নিজেও খায় না। অন্যকেও খেতে দেয় না। যা-ই করতে যাই একটা করে মামলা ঠুকে দেয়”। মমতার কটাক্ষ, “একটা করে পিল খেয়ে নেয়”। সেই সঙ্গে নাম না করে আইনজীবী বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্যের সমালোচনাও করেন মমতা।

এদিন মমতা জানান যে শুধুমাত্র শিক্ষক পদেই নয়, দক্ষতাভিত্তিক পদেও নিয়োগ করা হবে। নানান ক্ষেত্রে প্রশিক্ষণ দেবে রাজ্য। এরপর ৩০ হাজার যুবক-যুবতীকে নিয়োগ করা হবে। আগামী ১৫ দিনের মধ্যে তাদের হাতে নিয়োগপত্র তুলে দেওয়া হবে জানান মুখ্যমন্ত্রী। অনেক যুবক-যুবতীদের অভিযোগ তারা যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও চাকরি পান নি। রাস্তায় নেমে আন্দোলন করেছেন তারা।

এই প্রসঙ্গে এদিন মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “যারা জাস্টিস পায়নি, তাঁরা কিন্তু জাস্টিস আমাদের থেকে পাবেন”। একইসঙ্গে মমতা জানান, “আমরা কারও চাকরি খাইনি”। তিনি এও জানান যে শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে তৎকালীন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে কথা বলেছিলেন।

Related Articles

Back to top button