রাজ্য

পার্ক সার্কাসে ইফতার পার্টিতে যোগ দিলেন মমতা, বালিগঞ্জ কেন্দ্র থেকে বাবুলকে জেতানোর জন্য সংখ্যালঘুদের ধন্যবাদ মুখ্যমন্ত্রীর

পার্ক সার্কাসে কলকাতা পৌরসভা আয়োজিত ইফতার পার্টিতে আজ, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বসে চাঁদের হাঁট। এই ইফতার পার্টিতে হাজির ছিলেন তৃণমল প্রায় সমস্ত শীর্ষ নেতৃত্বই। আর অনুষ্ঠানের মধ্যমণি হলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিন এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ফিরহাদ হাকিম, চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য, বাবুল সুপ্রিয়রা। পার্টিতে হাজির হন সুদীপ বন্দোপাধ্যায়, নয়না বন্দ্যোপাধ্যায়, মহুয়া মৈত্রের মতো নেতা-নেত্রীরাও। করোনা পরিস্থিতির কারণে দু’বছর বন্ধ ছিল এই ইফতার পার্টি। তবে বর্তমানে করোনার ত্রাস খানিক কমতেই ফের আয়োজন করা হয়েছে এই অনুষ্ঠানের। এই পার্টি নিয়ে গত কয়েকদিন ধরেই পার্ক সার্কাসে ছিল সাজো সাজো রব।

এই পার্ক সার্কাস পড়ে বালিগঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রের মধ্যেই যেখান থেকে কিছুদিন আগেই জিতেছেন তৃণমূল প্রার্থী বাবুল সুপ্রিয়। তবে বাবুল এই কেন্দ্র থেকে জিতলেও তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সিপিএম প্রার্থী সায়রা শাহ হালিমের থেকে তাঁর মার্জিন খুব একটা বেশি না।

বালিগঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রকে মূলত মুসলিম অধ্যুষিত এলাকার মধ্যেই ধরা হয়। সেই কেন্দ্র থেকে তৃণমূল এত কম মার্জিনে জেতায় তা দলের জন্য অস্বস্তির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছিল বই কি! রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের দাবী ছিল যে বিজেপি থেকে আসা বাবুল সুপ্রিয়কে বালিগঞ্জের মানুষ ভালোভাবে মেনে নেন নি,

এবার সেই পার্ক সার্কাসের ইফতার পার্টিতেই বাবুলের সঙ্গে যোগ দিলেন মমতা। এই ঘটনা যে বিশেষভাবে তাৎপর্যপূর্ণ, এমনটাই মনে করছে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞ মহল। এদিন সন্ধ্যা ৬টার পর ইফতার পার্টিতে যোগ দেন মমতা। অনুষ্ঠান প্রাঙ্গনে মমতা পা রাখতেই সকলের মধ্যেই বেশ উচ্ছাস দেখা যায়। পার্টিতে ঢুকেই বাবুল সুপ্রিয় সঙ্গে হাসি মুখে কথা বলেন মমতা। অন্যান্যদের সঙ্গে কুশল বিনিময়ও করেন তিনি। পাশাপাশি এই কেন্দ্র থেকে বাবুলকে জেতানোর জন্য এলাকার সংখ্যালঘু মানুষদের ধন্যবাদও জানান মুখ্যমন্ত্রী।

Related Articles

Back to top button