রাজ্য

‘১৭০০০-এর চাকরি বাতিল হবে, এক লক্ষ চাকরি দিতে গিয়ে কিছু ভুল হতেই পারে’, শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য মমতার

রাজ্যে শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি (scam) নিয়ে রাজ্য সরকারের অস্বস্তি ক্রমে বেড়েই চলেছে। টেট (TET) থেকে শুরু করে এসএসসি (SSC) সবক্ষেত্রে নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগ উতেছে। একাধিক মামলায় চলছে সিবিআই তদন্ত। ইতিমধ্যেই এসএসসি নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় সিবিআইয়ের (CBI) জেরার মুখে পড়েছেন প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় (Partha Chatterjee) ও রাজ্যের শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী পরেশ অধিকারী (Paresh Adhikari)।

কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশে চাকরি গিয়েছে পরেশ-কন্যা অঙ্কিতা অধিকারীর। এমনকি, টেট নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় ২৬৯ জনের চাকরি বাতিল করেছেন। এবার এই নিয়ে বিধানসভায় মুখ খুললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আজ, সোমবার বিধানসভায় মমতা বলেন, “এক লক্ষ চাকরি দিতে গিয়ে একশোটা ভুল হতেই পারে। তা শুধরে নিতে হবে। এবং সময় দিতে হবে। বেকারদের আমরা চাকরি দেব। তাতে যদি কোনও সমস্যা হয়, তা মিটিয়ে নিতে হবে”।

শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে এদিন মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “আর যে দাদামণি চাকরি দিয়েছেন, তাঁর হিসেব কে নেবে? সিবিআই তাঁদের ধরবে না? মেদিনীপুর থেকে মুর্শিদাবাদ হয়ে উত্তর দিনাজপুর। সেই সব জায়গায় দাদামণি চাকরি দিয়েছেন। পুরুলিয়া জেলায় চাকরি দেননি, বঞ্চিত করেছিলেন ওঁদের। আমার বাড়িতে এসেছিলেন, চাকরি দিয়েছিলাম”।

এদিন শুভেন্দু অধিকারীকে আক্রমণ করে মমতা বলেন, “মন্দারমণির নাম এখন দাদামণি হয়ে গেছে। কেন হয়েছে? ওরা পার্থর বিরুদ্ধে কেস করেছে। বলা হচ্ছে, ১৭ হাজার চাকরি খেয়ে নেব। তা হলে ওই সব ছেলেমেয়েদের ওঁর বাড়ি পাঠিয়ে দেব। বিজেপি বিধায়কদের বাড়ি পাঠিয়ে দেব। সিপিএম জমানায় অনেক অবৈধ চাকরি হয়েছিল। আমি ক্ষমতায় এসে সেই সব চাকরি খেতে পারতাম। কিন্তু, তেমনটা করিনি। বলা হচ্ছে, ২০২৪-এ সব জিতে ক্ষমতায় আসবে আর সবাইকে জেলে ভরে দেবে”।

Related Articles

Back to top button