রাজ্য

পুজোয় প্রকাশিত হল মমতার নতুন গানের অ্যালবাম, ‘তুমি অন্তর দিয়ে গাওনি’, বাবুলের গানে মোটেই খুশি নন মুখ্যমন্ত্রী

নিজের নানান কর্মসূচি মধ্যেও তিনি ছবি আঁকেন, কবিতা লেখেন, গানও লেখেন। এবারের পুজোয় প্রকাশিত হয়েছে তাঁর গানের অ্যালবাম। এই অ্যালবামে রয়েছে তাঁর ৮টি গান। এই গানগুলি নিজেই লিখেছেন ও সুরও দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। আর গানগুলি গেয়েছেন অদিতি মুন্সি, ইন্দ্রনীল সেন, মনোময় ভট্টাচার্য, বাবুল সুপ্রিয় (Babul Supriyo)-সহ ৮জন শিল্পী। তবে বাবুলের গাওয়া গানে মোটেই খুশি নন মুখ্যমন্ত্রী। চেতলার পুজোর উদ্বোধনে গিয়ে সকলের সামনেই বাবুলকে মুখ্যমন্ত্রী বলেন যে ‘তুমি অন্তর দিয়ে গান গাওনি’। একথা শুনে বাবুল বলেন যে তিনি ‘টেনশনে’ ছিলেন। পাল্টা মমতা উত্তর দেন, “টেনশনের অর্ধেক স্ত্রীকে দিয়ে দাও”।

গতকাল, রবিবার নজরুল মঞ্চে প্রকাশিত হয়েছে তৃণমূল মুখপত্র ‘জাগো বাংলা’র উৎসব সংখ্যা। এই অনুষ্ঠানেই প্রকাশিত হয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ওই গানের অ্যালবাম উৎসবের গান। এই অনুষ্ঠানে মমতার লেখা ‘ঝরনার মতো ঝর গ্রামটি’ গেয়ে শোনান তৃষা পারুই। আবার ‘ধ্রুবতারা তুমি’ গানটি গেয়ে শোনালেন শিল্পী মনোময় ভট্টাচার্য। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কথা ও সুর দেওয়া ‘আকাশ যেখানে নীলিমায় নীল’ গানটি গেয়ে শোনালেন শিল্পী চন্দ্রিকা।

সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর নামে নানান সমালোচনা করা হচ্ছে বলে এদিন এই অনুষ্ঠান মঞ্চে অভিযোগ করেন মমতা। বলেন, “একসময় দিল্লিতে গিয়ে লজ্জা হতো।  বাংলার নামে বদনাম করা কিছু লোকের কাজ। আর বাংলার নামে বদনাম করলে আমার খুব রাগ হয়। এই মাটির নামে বদনাম করলে রাগ হয়। এই মাটির কারও সম্পর্কে অসম্মান করলে রাগ হয়। যে যেখানেই থাকুন প্রত্যেকটা মানুষের জীবনে একটা না একটা কার্মকাণ্ড থাকবেই”।

মমতার সংযোজন, “একটা কোথায় ছবি বের হল তা নিয়েও সমালোচনার ঝড়। আমাদের সংস্কৃতি তো মাথা তুলে চলার সংস্কৃতি। বাইরের কিছু লোক টাকা নিয়ে এখানে এমন কেউ নেই যে যার সম্পর্কে এরা খারাপ কথা বলে না। যারা সকালে থেকে সারাদিন এসব করছেন তারা যদি বাংলায় কী কী উন্নয়ন হচ্ছে কোথায় কী ভালো কাজ হয়েছে তা যদি তুলে ধরতেন তাহলে বাংলার উন্নয়ন আরও প্রচার পেত। গোটা দেশে তা শোভা পেত”।

সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর সমালোচনা প্রসঙ্গে মমতা বলেন, “আপানারা আমাকে গালাগাল করুন আমার কিছু যায় আসে না। শুভ মহালয়ার দিনে মায়ের কাছে কামনা করব দেবী যেন সকলকে ভালো রাখেন। আর বলব যারা এসব করছেন তারা বেশি করে এসব করুন। বেশি করে এসব করে যদি শান্তিতে ঘুমাতে পারেনা তাহলে নিশ্চয় ঘুমাবেন”।

তৃণমূল নেত্রীর কথায়, “আমরা প্রতিহিংসা পরায়ণ নই। বদলা নয়, বদল চাই বলেছিলাম বলেই গত ৩৪ বছরের বাম আমলের কাউকে গ্রেফতার করিনি। ধোয়া তুলসীপাতা কেউ নয়। যারা দিল্লিতে বসে রয়েছে, ওটা দিল্লি কা লাড্ডু। যে খেয়েছে সে পস্তেছে। যে খায়নি সেও পস্তেছে”।

Related Articles

Back to top button