রাজ্য

আরও সাত-আটজন বিজেপি বিধায়ক তৃণমূলে যোগ দেওয়ার পথে, দাবী মমতার, ফের ভাঙন গেরুয়া শিবিরে?

বিজেপিতে বেশ বড় ভাঙনের ইঙ্গিত দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি দাবী করেন যে আরও সাত-আটজন বিজেপি বিধায়ক নাকি তৃণমূলে যোগ দিতে চাইছেন। তিনি এও বলেন যে তাদের দলে নিতে তাঁর কোনও আপত্তি নেই। ফলে, আরও কয়েকজন বিজেপি বিধায়কের তৃণমূলে আসা আর মাত্র সময়ের অপেক্ষা বলেই ধরে নেওয়া যেতে পারে।

আজ, বুধবার তৃণমূলের সাংগঠনিক নির্বাচনে বক্তব্য রাখতে গিয়ে এই মন্তব্য করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ তাঁর দাবী, “এখানে আসতে আসতেই শুনলাম, আরও সাত আটজন বিজেপি বিধায়ক আমাদের দলে আসতে চান৷ তাঁরা উন্নয়নে সামিল হতে চান৷ তাঁদের সবাইকে স্বাগত”।

উল্লেখ্য, একুশের নির্বাচনের ফল প্রকাশের পর থেকেই একের পর এক নেতা-বিধায়ক বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে ফিরে গিয়েছেন। এদের মধ্যে সবথেকে উল্লেখযোগ্য হলেন মুকুল রায়। মুকুল রায়ের পরপরই মোট পাঁচজন বিধায়ক পদ্ম ছেড়ে ঘাসফুলে ভিড়েছেন।

এই তালিকায় রয়েছেন বিধায়ক কৃষ্ণ কল্যাণী, বাগদার বিধায়ক বিশ্বজিৎ দাস, কালিয়াগঞ্জের বিধায়ক সৌমেন রায়, বিষ্ণুপুরের বিধায়ক তন্ময় ঘোষ। এছাড়াও, সব্যসাচী দত্ত, রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের মতো নেতারাও পরবর্তীতে বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে ফিরে গিয়েছেন।

বিধায়কদের ধরে রাখতে মরিয়া বিজেপি মুকুল রায়ের বিরুদ্ধে দলত্যাগ বিরোধী আইন প্রয়োগ করার জন্য বিধানসভার অধ্যক্ষের কাছে আবেদন করে৷ মুকুল রায়ের বিধায়ক পদ খারিজ হবে কি না, তা নিয়ে খুব শিগগিরই রায় দেবেন বিধানসভার অধ্যক্ষ৷ বিষয়টি নিয়ে সুপ্রিম কোর্টেও মামলা চলছে৷

বিজেপির আশা ছিল যে দলত্যাগীদের বিরুদ্ধে জদিঙ্করা পদক্ষেপ নেওয়া হয়, তাহলে বাকি নেতা-বিধায়কদের আটকানো যাবে। কিন্তু এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্তব্যে পর এটা বেশ স্পষ্ট যে বিজেপির অন্দরে ফের ভাঙন লাগতে চলেছে।

Related Articles

Back to top button