রাজ্য

‘সম্পূর্ণ ভিডিওটি প্রকাশ করেন নি উনি’, শত্রুঘ্ন সিনহাকে নিয়ে তাঁর মন্তব্যের ‘আংশিক’ ভিডিও টুইট করেছেন শুভেন্দু, দাবী মনোরঞ্জনের

সম্প্রতি কলকাতা বইমেলায় বলাগড়ের তৃণমূল  বিধায়ক মনোরঞ্জন ব্যাপারীর এক ভিডিওকে ঘিরে বেশ চর্চা শুরু হয়েছে। সেই ভিডিওতে মনোরঞ্জন ব্যাপারী রাজ্যে বসবাসকারী বিহারিদের নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেছেন বলে অভিযোগ। আসানসোলে তৃণমূলের তরফে শত্রুঘ্ন সিনহাকে প্রার্থী করা নিয়েও মন্তব্য করেন তিনি।

তাঁর সেই মন্তব্যের ভিডিও টুইটারে পোস্ট করেছিলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। এই নিয়ে এবার নিজের প্রতিক্রিয়া দিলেন বলাগড়ের বিধায়ক। তাঁর কথায়, ওই ভিডিওটি আংশিক। তাঁর বক্তব্যের সম্পূর্ণ ভিডিও পোস্ট করেন নি শুভেন্দু, এমনই দাবী করেন মনোরঞ্জন ব্যাপারী। যদিও সেই ভিডিওর সত্যতা যাচাই করেনি খবর ২৪x৭।

গতকাল, সোমবার ওই ভিডিওটি টুইটারে পোস্ট করে বিরোধী দলনেতা লেখেন, “বিহারিবাবু শক্রঘ্ন সিন্‌হার কাছে আমার বিনীত প্রশ্ন, স্যার, তৃণমূল বিধায়ক মনোরঞ্জন ব্যাপারীর এই অপমানজনক বক্তৃতা সম্পর্কে আপনি কী অনুভব করেন? আপনার নতুন দলের সহকর্মীর বিহারিদের প্রতি অনুভূতি খুবই স্বচ্ছ”।

এই বিষয়ে মনোরঞ্জন ব্যাপারীর সঙ্গে যোগাযোগ হয় এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের তরফে। সেই সময় মনোরঞ্জন ব্যাপারী জানান, “শুভেন্দু অধিকারী সম্পূর্ণ ভিডিওটি প্রকাশ করেননি”।

তাঁর সংযোজন, “বাংলায় বাস করেন এমন অবাঙালি, যাঁরা বাংলাকে অসম্মান করেন না, বাংলার সাহিত্য-সংস্কৃতিকে সম্মান করেন, বাংলার মহিলাদের সম্মানের চোখে দেখেন, তাঁদের কিছু বলার নেই। কিন্তু যাঁরা বাঙালি এবং বাঙালির সাহিত্য-সংস্কৃতির বিরুদ্ধে বিষোদ্গার করেন,তাঁদের মতামত আমাকে পীড়িত করে। আমি যা বলেছি, তা আমার ব্যক্তিগত মত। দলের নয়”।

এই প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন যে তিনি নিজে শত্রুঘ্ন সিনহার হয়ে প্রচার করবেন। বিধায়কের কথায়, “দল শত্রুঘ্ন সিন্‌হাকে আসানসোল থেকে প্রার্থী করেছে। দলের প্রয়োজনে আমি এক জন সৈনিক হিসাবে সেখানে প্রচারে যাব”।

উল্লেখ্য, গত রবিবার টুইট করে তৃণমূল সুপ্রিমো আসানসোল লোকসভা উপনির্বাচনের জন্য শত্রুঘ্ন সিনহা ও বালিগঞ্জ বিধানসভা উপনির্বাচনের জন্য বাবুল সুপ্রিয়র নাম প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করেন।

Related Articles

Back to top button