রাজ্য

করোনাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে বাঙালির দেদার দীঘা ভ্রমণ! ‘মাস্কহীন’ মুখে অশনিসংকেত দেখছেন বিশেষজ্ঞরা

কলকাতা হাইকোর্টের(Kolkata High Court) আদেশকে একপ্রকার অমান্য করেই দুর্গাপূজায় ব্যাপক ভিড় জমিয়েছিলেন উৎসবমুখী বাঙালি জনতা। গোটা পশ্চিমবাংলা জুড়ে বাঙালির মন্ডপ দর্শনের যে ছবি উঠে আসে তা ভয় ধরিয়ে ছিল বিশেষজ্ঞ থেকে চিকিৎসক মহলে। অর্ধেকেরই মুখে মাস্ক নেই। চলে রাস্তার ধারের দোকানে, রেস্টুরেন্টে দেদার খাওয়া দাওয়া। প্রশ্ন ওঠে তাহলে কি আর করোনাকে ভয় পাচ্ছে না বাঙালি?

আর এবার পূজা পরবর্তী ভয়াবহ এক চিত্র উঠে আসল দীঘা (Digha) থেকে। দেখা যাচ্ছে দুর্গাপুজোর পর বাঙালি এবার ভিড় জমিয়েছে বাংলার অত্যন্ত প্রিয় সমুদ্র সৈকত দীঘায়। থিকথিক কড়ছে ভিড়। ফের এক ছবি মুখে নেই ‘মাস্ক।’

সরকার থেকে পাখি পড়ানোর মতো করে বলা দূরত্ব বিধিও ন্যূনতম মানা হচ্ছে না বলে অভিযোগ। এই অবস্থায় অশনি সংকেত দেখতে শুরু করেছেন অনেকে। দলবদ্ধ ভাবে সমুদ্রে স্নানে নামছেন পর্যটকেরা। সৈকতে ভিড় দেখে চোখ কপালে উঠতে বাধ্য। হোটেল থেকে সৈকতের আশেপাশের দোকানগুলিরও একই ছবি।

তবে আশার খবর উৎসবের মরসুমে দেশে করোনা গ্রাফ অনেকটাই নিম্নমুখী। বেড়েছে সুস্থতার হারও। পুজোর সময়ে বাংলার করোনা সংক্রমণের হার অনেকটাই বেড়ে গিয়েছিল। কিন্তু পুজো মিটতেই অনেকটা কমে সংক্রমণ।

তবে এই দোলাচলের মধ্যে রাজ্যের অন্যতম পর্যটনস্থল দীঘার চিত্র দেখে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন বিশেষজ্ঞরা। প্রশাসনের নিয়ম তোয়াক্কা না করে যেভাবে একশ্রেণির পর্যটক করোনা বিধিনিষেধ মানছেন না, তাতে উদ্বেগে রয়েছেন সকলে। বাড়ছে সংক্রমণের আশঙ্কাও।

Related Articles

Back to top button