সব খবর সবার আগে।

ফের মিনি টর্নেডো রাজ্যে, ঝড়ের দাপটে কয়েক মুহূর্তের মধ্যে লণ্ডভণ্ড খড়গপুরের গ্রাম

মাত্র কয়েক সেকেন্ডের ঝড়, তার মধ্যেই ওলটপালট গোটা গ্রাম। মিনি এই টর্নেডোর জেরে বিপর্যস্ত পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার খড়গপুর লোকাল থানা অন্তর্গত পূর্ব আম্বা এলাকা।

নিম্নচাপের জেরে বিগত কয়েকদিন ধরেই রাজ্যে অব্যাহত বৃষ্টি। এই কারণেই গতকাল রাতে বৃষ্টির মধ্যে ঘূর্ণিঝড় আছড়ে পড়ে পূর্ব আম্বা গ্রামে। মাত্র কয়েক সেকেন্ড স্থায়ী হয়েছিল এই মিনি টর্নেডো। আর তাতেই লণ্ডভণ্ড গোটা গ্রাম। এলাকা তছনছ হয়ে গিয়েছে।

সেই লণ্ডভণ্ড হওয়া গ্রামের ছবি সামনে এসেছে। ঝড়ের দাপটে একাধিক গাছ উপড়ে গিয়েছে। সবথেকে বেশি ক্ষতি হয়েছে কাঁচা বাড়িগুলির। টিন ও টালির চাল উড়ে গিয়েছে। অনেক বাড়ির দেওয়াল ভেঙে পড়েছে। প্রশাসনিক সূত্রের খবর অনুযায়ী, ওই এলাকায় এই মিই টর্নেডোর দাপটে প্রায় ৭০-৭৫টি বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ঝড়ের জেরে বাড়ির উপরেও বেশ কিছু গাছ পড়ে গিয়েছে।

আরও পড়ুন- ‘বিপর্যয় মোকাবিলা ব্যবস্থা তো নিজেই একটা বিপর্যয়’, খড়দহে জলমগ্ন আবাসনে তিনজনের মৃত্যুতে রাজ্যকে তোপ শুভেন্দুর

উল্লেখ্য, দিন সাতেক আগেই পশ্চিম মেদিনীপুরের নারায়ণগড়ে ধেয়ে এসেছিল টর্নেডো। মিনিট কয়েক স্থায়ী হয় সেই ঝড়। কিন্তু মুহূর্তের দাপটে তছনছ হয়ে যায় পুরিচকের মদন মোহন চক এলাকা।

প্রসঙ্গত, আবার সোমবার সকালেও আচমকাই ডায়মন্ডহারবারের গঙ্গাসাগরেও ওঠে টর্নেডো। এর জেরে সাগরে পঞ্চায়েত সমিতির গঙ্গাসাগর সি ব্রিজের কাছে একাধিক গাছ ভেঙে পড়ে। কপিলমুনি আশ্রমের কাছে বেশ কিছু কটেজ ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ভেঙে পড়ে দোকানপাট।

উল্লেখ্য, কিছুদিন আগেই ডায়মন্ডহারবার সংলগ্ন হুগলী নদীর উপর হঠাৎ ঘূর্ণাবর্তের সৃষ্টি হয়। এই ঘূর্ণাবর্তের জেরে নদীর জল আচমকাই ঘুরতে ঘুরতে অনেকটা উপরে উঠতে থাকে। তা দেখে ভয় পেয়ে যান স্থানীয়রা। তাদের কথায়, এমন দৃশ্য তারা আগে কখনও দেখেন নি।

You might also like
Comments
Loading...