রাজ্য

WB Election 2021: দিদি ও তাঁর গুণ্ডাবাহিনী এই হিংসার ঘটনা ঘটিয়েছে! শীতলকুচি হত্যাকাণ্ডে শিলিগুড়ি থেকে তোপ মোদীর 

এখন‌ও পর্যন্ত রাজ্যে চতুর্থ দফা নির্বাচনে ভোট হিংসার বলি ৫। দ্বিতীয় দফা নির্বাচনের আগেই শান্তিপূর্ণ ভোটের লক্ষ্যে নির্বাচন কমিশন হুঁশিয়ারি দিয়েছিল প্রয়োজনে গুলি চালাতে হতে পারে কেন্দ্রীয় বাহিনীকে। কিন্তু তা যে সত্যি হয়ে যাবে ভাবেনি বাংলা। আত্মরক্ষার্থে এদিন গুলি চালাতে হয় কেন্দ্রীয় বাহিনীকে। মৃত্যু হয় ৪ জনের। সকালেই তৃণমূল-বিজেপি হিংসার বলি হয় এক নতুন ভোটার।

আরও পড়ুন-নির্বাচন কমিশনের কড়া নির্দেশ, বাংলায় বন্ধ ভোট!

এদিন রাজ্যে ভোট প্রচারে রয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। শিলিগুড়ির সভা থেকে এই হিংসাত্মক ঘটনার প্রসঙ্গ টেনে প্রধানমন্ত্রী অভিযোগ করলেন, বিজেপি-র প্রতি মানুষের সমর্থন দেখেই ঘাবড়ে গিয়ে দিদি ও তাঁর গুণ্ডাবাহিনী এই হিংসার ঘটনা ঘটিয়েছে।

চলুন দেখে নেওয়া যাক এ দিনের সভা থেকে ঠিকই বলেছেন মোদী-

১. উত্তরবঙ্গের উন্নয়নের স্বপ্ন ফেরি করে প্রধানমন্ত্রী বলেন আমরা ক্ষমতায় এলে শিলিগুড়ি-সহ উত্তরবঙ্গের মানুষের জন্য অনেক উন্নয়ন করব। ভয় পাবেন না। আমরা আপনাদের সঙ্গে আছি, থাকব। নতুন বছরে নতুন বাংলা গড়ব।

২. কেন্দ্রীয় সরকার বাংলার জন্য অনেক প্রকল্প করেছে। কিন্তু দিদির লোক তা পৌঁছতে দেয়নি। বিজেপি ক্ষমতায় এলে আপনারা কাটমানি ছাড়া সব প্রকল্পের সুবিধা পাবে। আমরা ক্ষমতায় এলে চা বাগানের সঙ্গে যুক্ত শ্রমিকরা সব সুবিধা পাবেন।

৩. দিদি শিলিগুড়িতেই বলেছেন, তৃণমূলের লোকেরা ১০০, ২০০, ৫০০ টাকা নিচ্ছে। তাতে কী হয়েছে? কী অবস্থা। দিদি আপনি গরিবদের কষ্ট দেখতে পান না। তাই আপনাদের যেতে হবে।

৪.দিদি শুধু আপনাদের অভাব ও ভেদভাব দিয়েছে। আমি লকডাউনের সময় যে চাল পাঠিয়েছিলাম সেখানেও কাটমানি এসে গেছে।

৫. দিদি এখন সভা থেকে বলছেন কী ভাবে কেন্দ্রীয় বাহিনীকে ঘিরতে হবে। কী ভাবে ছাপ্পা ভোট দিতে হবে।

৬. প্রধানমন্ত্রী এদিন আশ্বাস দেন, বিজেপি ক্ষমতায় এলে তোলাবাজ মুক্ত, কাটমানি মুক্ত বাংলা হবে।

আরও পড়ুন- কসবায় তৃণমূল বাহিনীর হামলা, আক্রান্ত বিজেপি প্রার্থী ইন্দ্রনীল খাঁ, নীরব পুলিশ প্রশাসন

৭. শীতলকুচির ঘটনার প্রসঙ্গ টেনে প্রধানমন্ত্রী বলেন, কোচবিহারে যা হয়েছে খুব খারাপ হয়েছে। মৃতদের পরিবারকে আমার সমবেদনা। বিজেপি-র দিকে সমর্থন দেখে দিদি ও তাঁর গুণ্ডাবাহিনী ঘাবড়ে গিয়েছে। তাই দিদি ও তাঁর গুণ্ডাবাহিনী এ ভাবে হিংসার ঘটনা ঘটাচ্ছে। কেন্দ্রীয় বাহিনীর দিকে আক্রমণ করছে। আমি কমিশনকে আবেদন জানাচ্ছি কড়া ব্যবস্থা নিতে।

Related Articles

Back to top button