সব খবর সবার আগে।

হলদিয়ায় ইউনিয়ন সভাপতির পদ হারালেন সাংসদ দিব্যেন্দু অধিকারী, প্রকাশ্যে এলো তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব

কিছুদিন ধরেই মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে নানা জল্পনা চলছে। এরই মাঝে হলদিয়ায় শ্রমিক সংগঠনের সভাপতির পদ হারালেন তাঁরই ভাই তমলুকের সাংসদ দিব্যেন্দু অধিকারী। এই ঘটনাকে ঘিরে এখন রাজনৈতিক মহল বেশ সরগরম হয়ে রয়েছে। বিরোধী গোষ্ঠী এই ঘটনার কারণ হিসেবে শাসকদলের মধ্যেকার গোষ্ঠীদ্বন্দ্বকেই দায়ী করেছে।

কয়েক বছর ধরে হলদিয়া রিফাইনারি টাউনশিপ মেইনটেনেন্স কনট্রাক্টর ইউনিয়নের সভাপতি ছিলেন তমলুকের সাংসদ দিব্যেন্দু অধিকারী। কিন্তু গত ১৯শে আগস্ট একটি সাধারণ সভা ডেকে বর্তমান ইউনিয়নকে ভেঙে দেন হলদিয়া পুরসভার কাউন্সিলর ও ওই ইউনিয়নের কার্যকারী সভাপতি দেবপ্রসাদ মণ্ডল। কিন্তু হঠাৎ কি কারণে তিনি এমন কাজ করলেন? উল্লেখ্য তিনি শুধু সভাই ভাঙেননি উপরন্তু নিজেকে নতুন সভার সভাপতিও দাবি করেছেন।

এভাবে ইউনিয়ন ভেঙে, নিজেকে সভাপতি ঘোষণা করার ঘটনায় প্রশ্ন তুলেছেন ওই ইউনিয়নেরই কার্যকারী সহ সভাপতি ও জেলা আইএনটিটিইউসি সভাপতি শিবনাথ সরকার। তাঁর বক্তব্য, “১৯শে অগাস্ট ডাকা ওই সাধারণ সভা সম্পূর্ণ অগণতান্ত্রিক।”

এই ঘটনায় সভাপতি পদকে কেন্দ্র করে তৃণমূলের মধ্যে যে গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব এতদিন ধরে চলছিল তা প্রকাশ্যে চলে আসে। যার জেরে প্রবল অস্বস্তিতে পড়েছে তৃণমূল নেতৃত্ব। অন্যদিকে এই ঘটনায় শাসকদলকে কটাক্ষ করে বিজেপি শ্রমিক সংগঠন বিএমএস-এর জেলা কার্যকারী সভাপতি মন্তব্য করেন, “শুধু ওই ইউনিয়নেই নয় বরং প্রত্যেকটি কারখানাতেই এমন দৃশ্য দেখা যাচ্ছে। তারা নিজেদের মধ্যেই মারামারি করছে।” তবে এবিষয়ে সাংসদ দিব্যেন্দু অধিকারীর কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

অন্যদিকে এই ঘটনায় অন্য জল্পনার গন্ধ পাচ্ছেন অনেকে। আসলে কদিন আগেই দলীয় ও সরকারি বৈঠকগুলিতে তৃণমূলের তরফে মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীকে আমন্ত্রণ করা হয়। কিন্তু তিনি বৈঠকে অনুপস্থিত ছিলেন। আর তাঁর অনুপস্থিতি ঘিরেই এখন নানান গল্প শোনা যাচ্ছে। এর মধ্যে তাঁর ভাইয়ের সভাপতিত্ব চলে যাওয়ায় সন্দেহ আরো বাড়ছে। অনেক আবার প্রশ্ন তুলেছেন এই ঘটনা কি কাকতালীয় নাকি এর পিছনে রয়েছে অন্যকিছু।

_taboola.push({mode:'thumbnails-a', container:'taboola-below-article', placement:'below-article', target_type: 'mix'}); window._taboola = window._taboola || []; _taboola.push({mode:'thumbnails-rr', container:'taboola-below-article-second', placement:'below-article-2nd', target_type: 'mix'});
You might also like
Comments
Loading...
Share