রাজ্য

‘কোনও প্রমাণ নেই আমার বিরুদ্ধে, হেনস্থা করছে, রাজ্য সরকার চক্রান্ত করছে’, আদালত নিয়ে যাওয়ার পথে ক্ষোভ উগড়ে দিলেন নওশাদ

প্রায় একমাস ধরে জেলবন্দি আইএসএফ বিধায়ক নওশাদ সিদ্দিকি। তাঁকে জোর করে আটকে রেখে হেনস্থা করা হচ্ছে। রাজ্য সরকার চক্রান্ত করছে তাঁর বিরুদ্ধে। আজ, বুধবার ব্যাঙ্কশাল আদালতে নিয়ে যাওয়ার সময় এমনই অভিযোগ করলেন নওশাদ। গ্রেফতার হওয়া অন্যান্য আইএসএফ নেতাদের অভিযোগ, জেলের ভিতরে তাদের উপর মানসিক উৎপীড়ন করা হচ্ছে।  

আজ, বুধবার ব্যাঙ্কশাল আদালতে পেশ করা হয় নওশাদকে। আদালতে যাওয়ার পথে তিনি বলেন, “আমার বিরুদ্ধে এখনও পর্যন্ত কোনও প্রমাণ দেখাতে পারবেন না, যেখানে কাউকে মারো, ধরো— এ সব বলছি। এমন একটি শব্দও বলিনি”।

এখানেই শেষ নয়, একটু থেমে তিনি আরও বলেন, “যা চলছে, তা হেনস্থা ছাড়া আর কিছুই নয়। তবে এই হেনস্থা করে নওশাদ সিদ্দিকির আইএসএফকে বা বাংলার বঞ্চিত মানুষকে আটকাতে পারবে না”।

নওশাদের অভিযোগ, রাজ্য সরকার যে চক্রান্ত করছে, তা দিনের আলোর মতো স্পষ্ট। তাঁর কথায়, “আমি সরকারি কর্মচারীদের ডিএ নিয়ে যেমন বলি, সংখ্যালঘু, পিছিয়ে পড়া মানুষের জন্যও কথা বলি। সেটা বলবই”।

গত ২১শে জানুয়ারি আইএসএফের প্রতিষ্ঠা দিবসে গ্রেফতার করা হয় আইএসএফ বিধায়ক নওশাদ সিদ্দিকিকে। ধর্মতলার সভা থেকে নওশাদ-সহ আর বেশ কিছু আইএসএফ কর্মীকে গ্রেফতার করা হয়। অশান্তি ছড়ানোর অভিযোগ ওঠে তাদের বিরুদ্ধে। সেই থেকেই নওশাদ জেলবন্দি। একাধিকবার জামিনের আর্জি জানালেও তা খারিজ হয়ে যায়।

এদিন নওশাদ ছাড়াও পুলিশ ভ্যান থেকে নামার সময় আইএসএফ নেতাদের বলতে শোনা যায়, “জেলের ভিতরে পার্থ চট্টোপাধ্যায়, মানিক ভট্টাচার্যদের দুধে-ভাতে রেখেছেন। আমাদের উপর মানসিক অত্যাচার চলছে। উনি ভাবছেন, এ ভাবে আমাদের আটকে রেখে পঞ্চায়েত ভোট করবেন। কিন্তু লড়াই জারি থাকবে”।

debangon chakraborty

Related Articles

Back to top button