রাজ্য

খেলার স্কোর জানতে চাওয়ায় নওশাদকে ঠেলা মেরে আদালতে ঢোকাল পুলিশ, ‘পার্থদা হলে এটা করতে পারতেন’? পাল্টা প্রশ্ন আইএসএফ বিধায়কের

গত ২১শে জানুয়ারি থেকে জেলবন্দি আইএসএফ বিধায়ক নওশাদ সিদ্দিকি (Nawshad Siddiqui)। একাধিকবার আবেদন করা হলেও তাঁর জামিন খারিজ হয়ে গিয়েছে বারবার। আজ, সোমবার নওশাদকে বারুইপুর আদালতে তোলা হয়। এদিন প্রিজন ভ্যান থেকে নামার সময় নিয়োগ দুর্নীতিতে ধৃত প্রাক্তন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের (Partha Chatterjee) প্রসঙ্গ টানলেন নওশাদ।

এদিন যখন নওশাদকে বারুইপুর আদালতে নিয়ে যাওয়া হয়, সেই সময় পুলিশ ভ্যান ঘিরে ধরেন আইএসএফ কর্মী-সমর্থকরা। তড়িঘড়ি নওশাদকে আদালত কক্ষে নিয়ে যাচ্ছিল পুলিশ। সেই সময় তাঁকে ঠেলা দিয়ে নিয়ে যায় পুলিশ। এমন আচরণের জেরে নওশাদ প্রশ্ন করেন যে ‘পার্থদা হলে এটা করতে পারতেন”? তবে পরক্ষণে নিজেকে সামলে নিয়ে পুলিশি ঘেরাটোপের মধ্যে হাসতে হাসতে আদালতে ঢোকেন নওশাদ।  

এদিন হাত নাড়তে নাড়তেই গাড়ি থেকে নামছিলেন নওশাদ। এমন সময়ে এক পুলিশকর্মী তাঁর হাত ধরে টেনে নামাতে যান। এরপরই জিজ্ঞাসু চোখে নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় ধৃত রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রীর প্রসঙ্গ টানেন নওশাদ। ওই পুলিশকর্মীও পাল্টা কিছু একটা বলতে চান। তবে নওশাদ সিদ্দিকির কর্মী-সমর্থকদের কোলাহলে তা স্পষ্ট করে শোনা যায়নি।

এরপর গাড়ি থেকে নেমে আসেন আইএসএফ বিধায়ক। উপস্থিত সংবাদমাধ্যমের কর্মী এবং দলের কর্মী-সমর্থকদের কাছে ভারত ও অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট ম্যাচের ‘আপডেট’ জানতে চান তিনি। জিজ্ঞাসা করেন, “স্কোর কত?”।

বলে রাখি, গত ২১শে জানুয়ারি আইএসএফের প্রতিষ্ঠা দিবসে ধর্মতলা থেকে গ্রেফতার হন নওশাদ। ওই দিন পুলিশের সঙ্গে বচসায় জড়ান আইএসএফ কর্মীরা। দু’পক্ষেরই বেশ কিছুজন আহত হন। কয়েকজন আইএসএফ কর্মী-সহ গ্রেফতার করা হয় নওশাদকে। সেই থেকেই জেলে রয়েছেন আইএসএফ বিধায়ক।

debangon chakraborty

Related Articles

Back to top button