সব খবর সবার আগে।

কুছ পরোয়া নেহি! উত্তপ্ত রাজনৈতিক আবহেই এবার ডিনার ডেটে তৃণমূল সাংসদ নুসরত জাহান ও বিজেপি প্রার্থী যশ

রাজনীতিতে মতবিরোধ থাকতেই পারে। কিন্তু তা ব্যক্তিগত সম্পর্কের মাঝে অন্তরায় হতে পারেনা। প্রমাণ করলেন তৃণমূল সাংসদ নুসরাত জাহান ও রাজনীতিতে সদ্য পা রাখা বিজেপির তারকা প্রার্থী যশ দাশগুপ্ত।

নুসরত বরাবরই মমতা সমর্থক। বিভিন্ন সময়‌ই কড়া ভাষায় বিজেপিকে আক্রমণ করতে দেখা যায় তাঁকে। যশ আবার বিজেপি সমর্থক ‌। তবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রতি শ্রদ্ধাশীল তিনিও।

আরও পড়ুন- পুলিশের সাহায্য নিয়েই একাধিক বুথে লাগামছাড়া ছাপ্পা ভোট তৃণমূলের, উত্তপ্ত রাজ্য রাজনীতি

ব্যবসায়ী নিখিল জৈনের সঙ্গে নুসরতের বিবাহ-বিচ্ছেদের গুঞ্জন ও যশের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক দুটোতেই এখন‌ও সীলমোহর না পড়লেও যা রটে তার কিছুটা তো বটে।

আরও পড়ুন- তৃণমূল নেতার বাড়ি থেকে উদ্ধার ইভিএম, ভোট প্রক্রিয়ায় বড়সড় চক্রান্তের জল্পনা

তবে লোকে কে কী বলল তাঁদের যে কিছুই যায়ে আসে না তা স্পষ্ট চলন-বলনে। বঙ্গ রাজনীতি যেখানে বিজেপি -তৃণমূলের কাদা ছোঁড়াছুঁড়িতে উত্তাল, সেখানে তাঁরা বিন্দাস। দু-জনের বন্ধুত্বে এতটুকু আঁচ পড়েনি। রবিবার রাতে দুজেনের ইনস্টাগ্রামে দেখা গেল একই খাবারের ছবি। যা দেখে আপাতত দৃষ্টিতে মনে হচ্ছে এটি সুস্বাদু কোনও পাঁচতারা হোটেলের ডেসার্ট। যাঁর ক্যাপশনে লেখা রয়েছে ‘টেবিলে আমার ফেবারিট খাবার…আর সঙ্গে ফেবারিট যশ দাশগুপ্ত’। সেই পোস্ট নিজের ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করে যশ লিখেছেন, ‘তোমার তৃপ্তি আমি খুবই গুরুত্ব দিয়ে দেখছি’।

বিরোধী পক্ষরা কী বন্ধু হতে পারে না? একসঙ্গে বসে ডিনার, লাঞ্চ বা মিষ্টিমুখ করা যায় না? কিন্তু ভোট চলাকালীন শাসক-বিরোধীর এমন সম্পর্ক চোখে লাগছে অনেকেরই।

You might also like
Comments
Loading...